শনিবার ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ৩০ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৬ রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

ঢাকঢোল পিটিয়ে দলবদলে বসুন্ধরা কিংস

নভেম্বর ১৯, ২০১৯ | ৭:১৪ অপরাহ্ণ

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: জাঁকজমকভাবেই দলবদলে যোগ দিয়েছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস। অনেকটা উৎসবমুখরভাবেই দলবদলের সময়সীমা পার হওয়ার আগেই নিবন্ধন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা। এবার লক্ষ্য সম্ভাব্য সব টুর্নামেন্টই জেতা। বিশেষ করে এএফসি কাপে ভাল করা।

বিজ্ঞাপন

২০ নভেম্বর ছিল দলবদলের নিবন্ধন করার শেষ সময়। তার আগের দিন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনে (বাফুফে) এসে দলবদলের কার্যক্রম শেষ করে নিয়েছে কিংস।

এবার জাতীয় দলের একঝাঁক তারকাদের নিয়ে দল সাজিয়েছে বসুন্ধরা কিংস। সঙ্গে রক্ষণে শক্তি বাড়াতে ফিনল্যান্ড প্রবাসী বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ফুটবলারকেও দলে ভেড়িয়েছে ক্লাবটি। কাগজে কলমে সবচেয়ে শক্তিশালী দল গড়েছে কিংস।

সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স থেকে একটা ছোট্ট টোটকাও যোগ করেছে দলটি। সম্প্রতি শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাপ কাপে ব্যর্থতার পর রক্ষণে শক্তি বাড়ানোর তাগিদ থেকেই দলে নতুন ডিফেন্ডার ‍যোগ করেছে তারা। আর্জেন্টিনার নিকোলাস ডেলমন্টে, হাকিম বিশ্বাস, তাজিকিস্তানের আখতাম নাজারভের মতো অভিজ্ঞ ডিফেন্ডার দলে ভেড়িয়েছে। সঙ্গে মাঝমাঠে জাতীয় দলের ফুটবলার বিপলু আহমেদ ও রবিউল হাসানকে মোটা অংক দিয়ে দলে নিয়েছে কিংস।

বিজ্ঞাপন

জাতীয় দলে আসা-যাওয়া এমন ১৫ জন ফুটবলার এখন কিংস শিবিরে। ঢাকা আবাহনী থেকে তপু বর্মণ ও আতিকুর রহমান ফাহাদকে নিয়েছে দলটি। আরেক ফুটবলার বিশ্বনাথ ঘোষ শেখ রাসেল থেকে মোটা অংকের বিনিময়ে কিংসে যোগ দিয়েছেন। শেখ জামাল থেকে জাতীয় দলের রক্ষণভাগের প্রহরী ইয়াসিন খানও যোগ দিয়েছেন কিংস শিবিরে।

তাছাড়া চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ ও প্রথম ডিভিশন থেকে দু’জন খেলোয়াড় যোগ হয়েছে কিংস শিবিরে। গত মৌসুমের ১৪জন ফুটবলারকে রেখে দিয়েছে দলটি।

সবমিলিয়ে তারকাদের হাট বসেছে কিংস শিবিরে। প্রত্যেকটা টুর্নামেন্ট জেতার লক্ষ্য নিয়েই নামতে চলেছে বলে লক্ষ্যের কথা জানালেন দলের কোচ অস্কার ব্রুজন, ‘এই মৌসুমে আরও ভাল করবো। আগের থেকে আমরা এখন ভাল দল। আমাদের ভালো ভালো বিদেশি ফুটবলার আছে। আমরা প্রত্যেকটা টুর্নামেন্টই জিততে চাই।’

ক্লাবের সভাপতির চোখটা আন্তর্জাতিক ফুটবলের দিকেই। গত মৌসুমে ফেডারেশন কাপ হেরে যাওয়ায় এএফসির টিকিট পাওয়া হয়নি। এবার লিগ চ্যাম্পিয়ন হয়ে এএফসি কাপে প্রথমবার খেলবে দল। তাই নজরটা বিশেষ করে এএফসির প্রতি জানালেন দলের সভাপতি ইমরুল হাসান, ‘এএফসি কাপ খেলবো। বাংলাদেশের সম্মান যাতে সমুন্নত থাকে সেই চেষ্টা করবো। ডিফেন্সে গতবার এটু সমস্যা ছিলো। এবার সেই সমস্যা থাকবে না।’

খেলোয়াড়দের দলবদল বাজারে যোগ্যতার বিচারে উচ্চমূল্যে খেলোয়াড়দের ভেড়ানো হয়েছে কিনা জানতে চাইলে কিংস সভাপতি বলেন, ‘যার প্রাপ্য যতটুকু তাকে তাই দিচ্ছি। যত পারিশ্রমিক দেয়া দরকার তাই দেই।’ এবারও সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক পাওয়া খেলোয়াড়ের নাম প্রকাশ করলেন। সভাপতির মতে, গেলবারের মতো এবারও ইমন বাবু সবচেয়ে পারিশ্রমিক পাওয়া ফুটবলার কিংসে।

বসুন্ধরা কিংস:
গোলরক্ষক: আনিসুর রহমান জিকো, মিতুল হাসান, মাকসুদুর রহমান মাসুক, হামিদুর রহমান রিমন। রক্ষণভাগ: সুশান্ত ত্রিপুরা, নুরুল নাঈম ফয়সাল, ইয়াসিন খান, তপু বর্মণ, বিশ্বনাথ ঘোষ, জাহাঙ্গীর আলম সজীব, মনির হোসেই, নিকোলাস ডেলমন্তে, তারিক কাজী, হাকিম বিশ্বাস, ফয়েজ আহমেদ ও আখতাম নাজারভ। মিডফিল্ডার: ইমন মাহমুদ, মাসুক মিয়া জনি (ইনজুরিতে), রবিউল হাসান, মতিন মিয়া. বিপলু আহমে, আতিকুর রহমান ফাহাদ, আলমগীর রানা, বখতিয়ার দুশবেকভ, মোহাম্মদ ইব্রাহিম, ফয়েজ আহমেদ। আক্রমণভাগ: তৌহিদুল আলম সবুজ, রাসেল আহমেদ, মাহবুবুর রহমান সুফিল, ডানিয়েল কলিনদ্রেস, রিমন হোসেইন।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/জেএইচ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন