শুক্রবার ৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ২২ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ৮ রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

দল গুছিয়েছে শেখ রাসেল ও পুলিশ, নতুন উদ্যমে মোহামেডান

নভেম্বর ১৯, ২০১৯ | ১০:২২ অপরাহ্ণ

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ঘোড়ায় চড়ে উল্লাস করতে করতে বাফুফে ভবনের সামনে এসেছে বাংলাদেশ পুলিশ এফসি। সঙ্গে বাজনাবাদ্যোতো আছেই। একটা উৎসব উৎসব ভাব। হওয়ার কারণও আছে। চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ থেকে এবারই প্রথমবার প্রিমিয়ার লিগে উঠলো দলটি। দলবদলের নিবন্ধনের কাজ সেড়ে ফেলেছে উচ্ছ্বাসে। এদিকে দল গুছিয়ে নিয়েছে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র। ক্যাসিনো ঝড়ের পর শঙ্কায় থাকা ঐতিহ্যবাহী ক্লাব মোহামেডান জেগে উঠেছে পূর্ণোদ্যমে।

বিজ্ঞাপন

দলবদলের শেষ তারিখ ২০ নভেম্বর। ১ অক্টোবর থেকে শুরু হয়ে ২০ নভেম্বর নিবন্ধনের শেষ সময়সীমা করে দিয়েছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। একদিন আগেই দলবদল কার্যক্রম শেষ করে ফেলেছে বাংলাদেশ ‍পুলিশ এফসি, শেখ রাসেল ও মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব।

শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র:
সবার আগে দলবদলের নিবন্ধন কার্যক্রম শেষ করেছে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র। তরুণ-অভিজ্ঞ মিশেলে গেলবারের মতো এবারও হ্যাভিয়েট দল গড়েছে শেখ রাসেল।

গেলবারের ১১ ফুটবলারকে ধরে রেখেছে শেখ রাসেল। তাদের মধ্যে জাতীয় দলের গোলরক্ষক আশরাফুল ইসলাম রানা, এলিসন উদোকা, রাফায়েল ওদোইন, আলিসার আজিজবরা আছেন। সঙ্গে যোগ হয়েছে নতুন উদীয়মান ফুটবলার। নোফেল থেকে দলে ভিড়েছেন খন্দকার আশরাফুল ইসলাম। পরীক্ষিত ‍ফুটবলার হেমন্ত ভিনসেন্ট কিংস ছেড়ে এ দলে যুক্ত হয়েছেন। মোহামেডান ছেড়ে মোটা অংকে শেখ রাসেলে যোগ দিয়েছে তকলিস আহমেদ। তাছাড়া দলে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ খেলার অভিজ্ঞতা আছে এমন ফুটবলার ক্রিস্টোফর হার্ডকে দলভুক্ত করেছে। মালয়েশিয়ায় খেলা ব্রাজিলিয়ান বংশোদ্ভূত তিমুর ফরোয়ার্ড পেদ্রো হেরিককেও দলে ভেড়িয়েছে অল ব্লুসরা।

বিজ্ঞাপন

সব মিলে টাইটেল ফাইট দেয়ার মতো দল গড়েছে বলে মন্তব্য পুনরায় কোচ হিসেবে নিযুক্ত সাইফুল বারী টিটুর, ‘এবার দেশি-বিদেশি ফুটবলাররা ভাল আছে। এবার সবগুলো দলই দারুণ দল করছে। তবে আমাদের দল নিয়ে আমার আস্থা আছে। ফাইটিং হবে। আমরা টাইটেলের জন্য লড়বো।

এবার শেখ রাসেল যেন আক্রমণভাগে বেশি মনোযোগ দিয়েছে। কোচ টিটুর কথায়, ‘আমি ডিফেন্সিভ কোচ যে না এজন্য আক্রমণভাগের বেশি ফুটবলার নিয়েছি। গতবার সবচেয়ে গোল করেছে আমাদের দল।’

মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব:
ক্যাসিনো কাণ্ডের পর যেন ঝড় বইয়ে গেছে ঐতিহ্যবাহী ক্লাব মোহামেডানের উপর। সেই ঝড় সামলে নতুন উদ্যমে দল গঠন করেছে সাবেক ফুটবলাররা। আজ দলবদলের আগে মোহামেডানের সাবেক ফুটবলাররা টিপু, গাফ্ফার, বাদল রায়দের চোখে অশ্রু নেমে এলো। এ অশ্রু কষ্টের-আনন্দের সংমিশ্রণ। ঝড় সামলে নতুন উদ্যোমে মাঠে নেমেই দল গঠন করেছে তারা।

ক্লাবকে বাঁচিয়ে রাখতে এগিয়ে এসেছে মোহামেডানের সাবেক তারকা ফুটবলাররা। এগিয়ে এসে একেবারে শেষ মুহূর্তে দল গঠন করেছেন। কোচ হিসেবে রেখেছেন আগের কোচ সিন লেনকেই। খুব শক্তিশালী দল গঠন করতে না পারলেও ঝড়ের পর দল গড়ে মান বাঁচিয়েছেন সাবেকরা।

দলের ম্যানেজার ও ক্লাবের স্থায়ী কমিটির সদস্য ইমতিয়াজ আহমেদ নকিব বলেন, ‘এ দল দিয়ে ধীরে ধীরে আমরা মোহামেডানের ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করবো। এবারের লিগে এক থেকে তিনের মধ্যে থাকতে চাই আমরা।’

মোহামেডানের অস্ট্রেলিয়ান কোচ সিন লেন অবশ্য এবারের দল নিয়ে আশাবাদী, ‘তরুণদের পাশাপাশি ভালো মানের বিদেশি ফুটবলার নিয়েছি আমরা। আমার বিশ্বাস, এবার ভালোই করবে আমাদের দল।’

ক্লাবের স্থায়ী কমিটির সদস্য মঞ্জুরুর রহমান মঞ্জু বলেন, ‘ঘরে নয় মাঠেই কাজ শুরু করেছে। জানিয়ে দিচ্ছি, দুর্যোগ কাটিয়ে নতুন দিনে নতুন ভাবে জেগে উঠবে ক্লাব। উঠতি তারকা নিয়ে দল গঠর করেছি। আমরা চাইবো মোহামেডানের সুস্থ ধারা অব্যাহত হবে।’

বাংলাদেশ পুলিশ এফসি:
এবার দলবদলের নিবন্ধন করতে সবচেয়ে চমক হয়ে এসেছে পুলিশ এফসি। ঘোড়ায় সওয়ার হয়ে একেবারে উৎসবমুখর পরিবেশের মধ্য দিয়ে বাফুফে ভবনে হাজির হয়েছে পুলিশ এফসি। হওয়াটা স্বাভাবিক। চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ থেকে প্রিমিয়ার লিগে প্রথমবার ওঠার আনন্দ বলে কথা।

নবাগত হলেও প্রিমিয়ার লিগে থিতু হতে চায় পুলিশ এফসি। সংবাদ সম্মেলনে সেটা ভালভাবেই জানিয়ে দিলেন ক্লাবের সভাপতি ড. বেনজির আহমেদ, ‘সব খেলায় বাংলাদেশ পুলিশ অংশ নেয়। ফুটবল বাংলাদেশের অত্যন্ত জনপ্রিয় খেলা। সর্বোচ্চ লিগে আসতে অত্যন্ত খুশি। বাফুফে সর্বোচ্চ যে পেশাদারিত্ব দেখাবে আমরা আশা করছি। বাফুফে সব লজিস্টিক সহযোগিতা করবে এটা আশা করি। বিদেশি কোচ নিয়েছি। ভাল প্লেয়ার নেয়ার চেষ্টা করেছি। উদ্দেশ্য একটা ভালো দল করা। বাংলাদেশের ফুটবলে অবদান রাখা।’

দেশের নিকট অতীত বলে নবাগত দলরা যেমন চ্যাম্পিয়ন হয় আবার প্রথম মৌসুমেই চ্যাম্পিয়ন হওয়ার নজির বেশি রাখে। তবে, পুলিশ এফসি কোন তারকা দেশি খেলোয়াড় না ভেড়ালেও বিদেশি ফুটবলার দলে নিয়েছে ভেবে চিন্তেই। ব্রাজিল কিংবদন্তি কাকার সতীর্থ ফুটবলার সিডনী রিভেরাকে দলে নিয়েছে তারা। চট্টগ্রাম আবাহনীর হয়ে খেলা রাশিয়ান ফুটবলার লুকা রটকভিচকে দলে ভেড়িয়েছে তারা। আর দলে ১৪ জন খেলোয়াড় কোটায় পুলিশে চাকুরিরত ফুটবলার আছে। তাছাড়া বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত প্রবাসী ফুটবলার যোসেফ নুরও খেলবেন এই দলে।

দলটা নিয়ে চ্যালেঞ্জ নিতে হবে নিযুক্ত হওয়া সাবেক টিম বিজেএমসির কোচ নিকোলা ভিটোরোভিচকে। জানালেন তার লক্ষ্যের কথা, ‘আমাদের ক্লাব পেশাদারিত্ব বজায় রেখে কাজ শুরু করেছে। ইমপ্রুভ করছে স্থানীয় ফুটবলাররা। তারাই জাতীয় দলে সুযোগ করে নিবে। ভাল কিছু হবে বলে আশা করি।’

প্রিমিয়ার লিগে প্রথমবার সুযোগ পাওয়াটাই যেন স্বপ্নপূরণ বলে মনে করেন টিম ম্যানেজার শেখ মারুফ হাসান, ‘আমাদের স্বপ্ন ছিল আমরা প্রিমিয়ারে খেলবো। আজ সেই স্বপ্ন বাস্তবে পরিণত হয়েছে।’

দলবদল শেষ হবে ২০ নভেম্বর। এখনও চূড়ান্ত ক্যালেন্ডার দেয়া হয়নি ফেডারেশন থেকে। এ বিষয়ে পেশাদার লিগ কমিটির চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম মুর্শেদী বলেন, আগামী মৌসুমে অনেক ইভেন্ট থাকবে। সেজন্য আমাদের চ্যালেঞ্জটা হবে সময়। ১৩ দল। ডিসেম্বরের মাঝামাঝি ১৯-২০ আমরা পেশাদার টুর্নামেন্ট শুরু হবে। জানুয়ারিরর শেষ দিকে লিগ শুরু হবে। মিড জানুয়ারিতেই শুরু করে দিতে পারি লিগ।’

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/জেএইচ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন