শুক্রবার ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ২৯ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৫ রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

প্রথম দিনে সব প্রাপ্তিই ভারতের

নভেম্বর ২২, ২০১৯ | ১০:২৯ অপরাহ্ণ

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রথমবারের মতো গোলাপি বলে খেলতে আজ (২২ নভেম্বর) মাঠে নেমেছিল বাংলাদেশ এবং ভারত। চলমান সিরিজের ১ম টেস্টে ইনিংস ব্যবধানে হারের পর বাংলাদেশ ভালো করার প্রত্যয় নিয়ে খেলতে নেমেছিল ঐতিহাসিক এই দিবা রাত্রির টেস্ট। কিন্তু সব আসা ভরশা ভণ্ডুল হয়ে গেছে মমিনুল বাহিনীর। টেস্টের প্রথম দিনে হতাশা ছাড়া আর কিছুই পায়নি সফরকারীরা।

বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশের স্বপ্নভঙ্গ শুরু হয় ইনিংসের ৭ম ওভার থেকে। দলীয় ১৫ রানে ওপেনার ইমরুল কায়েস সাজঘরে ফিরে উইকেটের মড়ক লাগানো শুরু করেন। এরপর ৬০ রান তুলতেই বাংলাদেশের ৬ টপ অর্ডার সাজঘরে ফিরে যান। এমনকি অধিনায়ক মমিনুল হক, মুশফিকুর রহিম এবং মোহাম্মদ মিঠুন রানের খাতা না খুলেই তল্পিতল্পা গুছিয়ে সাজঘরে ফেরেন।

বাংলাদেশের কপালের দুর্ভাগ্যের রেখা পুরোপুরি ফুটে উঠে যখন লিটন দাস এবং নাইম হাসান ইনজুরিতে পড়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়েন। লিটন দাসের বদলি হিসেবে নামেন মেহেদী মিরাজ এবং নাইম হাসানের পরিবর্তে খেলতে নামেন তাইজুল।

ভারতের পেস তোপে ব্যাটসম্যানদের আসা যাওয়ার মিছিল না থামলেও ৩০.৩ ওভারে ১০৬ রানে ঠিকই থেমে যায় বাংলাদেশের ইনিংস। বাংলাদেশের ১০ উইকেটের প্রতিটিই নিয়েছেন ভারতের পেসাররা।

বিজ্ঞাপন

এই ১০৬ রানের ভেতর প্রাপ্তি শুধু একটাই। সেটা হল ঐতিহাসিক টেস্টের টসে জয়। এছাড়া গোটা ম্যাচ জুড়েই অপ্রাপ্তি এবং হতাশা জেঁকে রেখেছিল বাংলাদেশকে।

অপরদিকে সম্পুর্ণ বিপরীত চিত্র ভারত শিবিরে। অভিষেক দিবা রাত্রির টেস্টটা যেন নিজেদেরই করে রাখল তারা। দিন শেষে সব প্রাপ্তি তাদের ঝুলিতে। গোলাপি বলে এক ইনিংসে ৫ উইকেট পাওয়া একাদশ বোলার হিসেবে নাম লেখান ইশান্ত শর্মা। ১২ ওভার বোলিং করে ৪ টি মেইডেনের সাথে ২২ রানে ১.৮৩ ইকোনোমি রেটে নেন ৫ উইকেট। এছাড়াও  প্রথম দিনেই দুটি অর্ধশতকের ইনিংস খেলেন পূজারা এবং কোহলি। এইদিনই অধিনায়ক হিসেবে ৫০০০ রানের রেকর্ড করেন ভিরাট কোহলি।

সব মিলিয়ে প্রাপ্তির একদম ষোল কলা পূর্ণ হয়েছে  আজকের দিনে ভারতের। আর বাংলাদেশ পেয়েছে শুধুমাত্র একগুচ্ছ হতাশায় ভরা একটি দিন। যেখানে নেই কোনো অর্ধশতকের ইনিংস, আছে শুধু পুরো ম্যাচ জুড়ে গোলাপি বলের ছোবল।

৬৮ রানে এগিয়ে থেকে দিন শেষ করেছে স্বাগতিকরা। হাতে আছে ৭ উইকেট। বোঝাই যাচ্ছে বাংলাদেশকে বড় লিড উপহার দিতে যাচ্ছে কোহলির দল। এখন দেখার বিষয় কোথায় গিয়ে থামে ভারতের ইনিংস। ঘুরে কি দাঁড়াতে পারবে বাংলাদেশ! নাকি ইন্দোরের সেই চিরচেনা রূপ আবার ফিরে আসবে বাংলাদেশ শিবিরে সেটাই এখন চিন্তার মুখ্য বিষয়।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এনএ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন