সোমবার ৯ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ২৫ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১১ রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

ভুটানের কাছে হেরে এসএ গেমস শুরু বাংলাদেশের

ডিসেম্বর ২, ২০১৯ | ৪:১৭ অপরাহ্ণ

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ভারত নেই। এসএ গেমসের ফুটবল ইভেন্টে স্বাভাবিকভাবে ফ্যাবারিট ধরা হয়েছিল বাংলাদেশকে। স্বর্ণ পুনরুদ্ধারের মিশনে প্রথম বড় ধাক্কা খেলো জামাল-জীবনরা। ভুটানের কাছে হেরে গিয়ে স্বর্ণের পদকের আশায় এক টুকরো হতাশার জন্ম দিলো বাংলাদেশ।

বিজ্ঞাপন

১৯৯৯ সালে এই নেপালের কাঠমুন্ডুতেই সেবার নেপালকে ১-০ ব্যবধানে হারিয়ে স্বর্ণ জিতেছিল বাংলাদেশ। ১১ বছর অপেক্ষার পর ২০১০ সালে দেশের মাটিতে দ্বিতীয় ও শেষবার স্বর্ণ জিতেছিল বাংলাদেশ।

এই দেশেই দশরাত রঙ্গশালা স্টেডিয়ামে আজ দুপুরে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই ভুটানের সঙ্গে ১-০ ব্যবধানে হেরেছে জেমি ডে'র শিষ্যরা।

এবার অবশ্য অন্যান্য বারের মতো প্রস্তুতি শুরু করতে পারেনি জেমি ডে। ক্লাব থেকে খেলোয়াড়দের আগেভাগে ছাড়তে না চাওয়ায় সরাসরি নেপালের উদ্দেশ্যে রওনা দিতে হয়েছে পুরো দলকে। জেমি ইংল্যান্ড থেকে সরাসরি নেপালে দলের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন। সেখানে মাত্র দু’দিন অনুশীলনের সময় পেয়েছে পুরো দল।

বিজ্ঞাপন

প্রস্তুতির অভাব দেখা গিয়েছে পুরো ম্যাচ জুড়েই। স্কোয়াডে ১৬জন জাতীয় দলের ফুটবলার। বলতে গেলে জাতীয় দল নিয়ে স্বর্ণের দাবিদাররা ভুটানের সঙ্গে পেরে উঠেনি কোনোভাবেই। প্রথমার্ধে কোনো প্রভাব ফেলতে পারেনি মাঠে। অগোছালো ফুটবল উপহার দিয়ে প্রথমার্ধে গোলশূন্য থেকে দ্বিতীয়ার্ধেও তেমন পরিকল্পিত আক্রমণ করতে ব্যর্থ হয় ফুটবলাররা। উল্টো ম্যাচের দখল রেখে ৬৪ মিনিটে চেনচো গেইলসেনের গোলে লিড নেয় ভুটান।

পিছিয়ে থেকে কিছুটা জেগে উঠলেও গোলের দেখা পায়নি বাংলাদেশ। তাই ম্যাচে তিন পয়েন্ট খুইয়ে মাঠ ছাড়তে হয়েছে জেমির শিষ্যদের।

তবে এখনই স্বর্ণ পদকের আশা নিভে যায়নি। সামনে আরও তিন ম্যাচ হাতে পাচ্ছে ফিরে আসার। তবে টানা দুটি ম্যাচে মাঠে নামতে হবে জামাল-সুফিলদের। মঙ্গলবার (৩ ডিসেম্বর) ও বুধবার (৪ ডিসেম্বর) যথাক্রমে মালদ্বীপ ও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। ৮ ডিসেম্বর শেষ ম্যাচে স্বাগতিক নেপালের সঙ্গে খেলবে বাংলাদেশ দল।

বাংলাদেশ একাদশ: আনিসুর রহমান, বিশ্বনাথ ঘোষ, ইয়াসিন খান, রিয়াদুল হাসান, রহমত মিয়া, জামাল ভূঁইয়া, বিপলু আহমেদ, সাদ উদ্দিন, রবিউল হাসান, বিপলু আহমেদ, মোহাম্মদ ইব্রাহিম, নাবিব নেওয়াজ জীবন

২০ সদস্যের বাংলাদেশ দল:
গোলরক্ষক: আনিসুর রহমান জিকো, মোহাম্মদ পাপ্পু হোসেন ও মাহফুজুর রহমান প্রীতম।

রক্ষণভাগ: বিশ্বনাথ ঘোষ, রহমত মিয়া, ইয়াসিন খান, টুটুল হোসেন বাদশা, রিয়াদুল হাসান, ইয়াসিন আরাফাত ও সুশান্ত ত্রিপুরা।

মধ্যমাঠ: জামাল ভুঁইয়া (অধিনায়ক), বিপলু আহমেদ, রবিউল হাসান, মাহবুবুর রহমান, মোহাম্মদ ইব্রাহিম ও মোহাম্মদ আল আমিন।

আক্রমণভাগ: সাদ উদ্দিন, নাবীব নেওয়াজ জীবন, রাকিব হোসেন ও আরিফুর রহমান।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/জেএইচ/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন