রবিবার ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ১ পৌষ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৭ রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মচারীকে শোকজ

ডিসেম্বর ৩, ২০১৯ | ১২:২১ পূর্বাহ্ণ

চবি করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো: চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) মো. মাসুদ ফরহান অভি নামে এক কর্মচারীকে কারণ দর্শানোর নোটিশ (শোকজ) দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

বিজ্ঞাপন

সোমবার (২ ডিসেম্বর) দুপুরে তাকে এই কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়। তার বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয় জাদুঘর থেকে রসায়ন বিভাগে উর্ধ্বতন সহকারী হিসেবে বদলি করে কর্মস্থলে যোগ না দেওয়ায় কর্মচারী (দক্ষতা ও শৃঙ্খলা) সংবিধির ৩ ধারা অনুসারে শাস্তিযোগ্য অপরাধ অভিযোগ আনা হয়েছে।

নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে, গত ২৮ নভেম্বর এক অফিস আদেশের মাধ্যমে তাকে বিশ্ববিদ্যালয় জাদুঘর থেকে রসায়ন বিভাগে ঊর্ধ্বতন সহকারী হিসেবে বদলি করা হয়। ওই দিনই এই আদেশ গ্রহণ করেন তিনি। কিন্তু এখনো যোগ দেননি। যা কর্মচারী (দক্ষতা ও শৃঙ্খলা) সংবিধির ৩ ধারা অনুসারে শাস্তিযোগ্য অপরাধ। তাই তিন দিনের মধ্যে তাকে ব্যাখ্যা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়।

তবে এই নোটিশ পাওয়ার পর বদলি না করতে প্রশাসনকে নানা ভাবে তিনি চাপ দিচ্ছেন বলে বিভিন্নসূত্রে জানা গেছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক শিক্ষক সারাবাংলাকে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি রেজাউল হক উপাচার্যের কাছে গিয়ে বদলি না করতে সুপারিশ করেছেন।

বিজ্ঞাপন

তবে বদলি না করতে উপাচার্যকে সুপারিশের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি রেজাউল হক রুবেল। তিনি বলেন, কোনো কর্মচারীর জন্য সুপারিশ করিনি। আর ছাত্রলীগের এসব ঝামেলার মাসুদ ফরহান জড়িত কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, সে একজন কর্মচারী তার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ কেন মারামারি করবে। ফরহান প্রভাবশালী কেউ নন। তাই মারামারির পেছনে সে কোনো কারণ হতে পারে না।

এই বিষয়ে কর্মচারী মাসুদ ফরহান অভি সারাবাংলাকে বলেন, ‘অসুস্থ থাকার কারণে আমি রোববারে অফিসে যেতে পারিনি। এই কারণে ওই বিভাগে যোগদান করতে পারিনি। এরমধ্যে বেতন ভাতা বন্ধ করে দেওয়া হয়। একজন মুক্তিযোদ্ধা সন্তান হিসেবে আমি হতাশ যে আমাকে বেতন বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।’

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/সিসি/এমআই

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন