বিজ্ঞাপন

সুস্থতার জন্য প্রতিদিন পাঁচ মিনিট দৌড়ান

December 6, 2019 | 10:00 am

লাইফস্টাইল ডেস্ক

ব্যায়ামের নানাধরনের উপকারিতা থাকলেও ব্যস্ত জীবনে ব্যায়ামের পেছনে বা জিমে অতিরিক্ত সময় দেওয়া সম্ভব হয়ে ওঠে না অনেকের জন্যই। সেক্ষেত্রে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সারা দিনে অন্তত পাঁচ মিনিট দৌড়ান। এটা আমাদের শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্য ভালো রাখতে দারুণ কার্যকরী। আসুন দেখে নেই, দিনে পাঁচ মিনিট দৌড়ের উপকারিতাগুলো কী কী।

বিজ্ঞাপন

ক্যালরি পোড়াতে
একদমই ব্যায়াম না করার চেয়ে অল্প কিছু ব্যায়াম করাও ভালো। দৌড়ানো চমৎকার কার্ডিও ধরণের ব্যায়াম যা ক্যালরি ব্যায়ের পাশাপাশি পুরো শরীরের সুস্থতায় কাজ করে। তবে যারা ওজন কমাতে চান, তাদের জন্য পাঁচ মিনিটের দৌড় পর্যাপ্ত নয়। তার জন্য আরও বেশি সময় দৌড়াতে হবে।

মন ভালো রাখতে
শুধুই সুস্থতার জন্য নয়, দৌড়ালে মনও ভালো থাকে। মন ভালো রাখার পাশাপাশি এটা বিষণ্ণতার লক্ষণ দুর করতেও ভুমিকা রাখে। বিশেষজ্ঞরা মানসিক স্বাস্থ্য ভালো রাখতে প্রতিদিন দৌড়ানোর পরামর্শ দিচ্ছেন। তাই, যদি কারও মনে খারাপ লাগে, সময় বের করে অন্তত পাঁচ মিনিটের জন্য হলেও দৌড়ে আসুন।

বিজ্ঞাপন

রক্তে চিনির মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে
শুধুমাত্র ডায়াবেটিসে আক্রান্ত রোগীদের জন্যই নয়, রক্তে চিনির মাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকা সবার জন্যই জরুরী। রক্তে চিনির মাত্রা নিয়ন্ত্রণে দিনে পাঁচ মিনিটের দৌড় বেশ কার্যকরী ভুমিকা রাখে।

ভালো ঘুমের জন্য
ঘুম কম হলে নানারকম স্বাস্থ্য সমস্যা দেখা দেয়। সুস্থ শরীর ও মনের পাশাপাশি ভালো ঘুমের জন্যও প্রতিদিন অন্তত পাঁচ মিনিটের দৌড় বেশ উপকারী। আবার যাদের ঘুমের সমস্যা আছে, তারাও প্রতিদিন দৌড়াতে পারেন।

সুস্থ ও স্বাভাবিক রক্তচাপের জন্য
আজকাল অনেকেই উচ্চ রক্তচাপে ভুগে থাকেন। এর ফলে মারাত্মক সব স্বাস্থ্য সমস্যা দেখা যাচ্ছে। প্রতিদিন পাঁচ মিনিটের দৌড় হৃৎপিণ্ডের সুস্থতার জন্য জরুরী। এটি রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাকজতে সাহায্য করে।

হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়
যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যুর প্রধান কারণ, হৃদরোগ। প্রতিদিন পাঁচ মিনিটের দৌড় হৃদরোগে মৃত্যুহার অর্ধেকে নামিয়ে আনতে পারে। আমেরিকান কলেজ অফ কার্ডিওলজিতে এমন প্রায় ৫৫ হাজার প্রাপ্তবয়স্কদের উপর করা এক গবেষণায় দেখা যায় যারা ১৫ বছর ধরে ব্যায়াম করছেন তাদের হৃৎপিণ্ড ও ফুসফুস বেশি সুস্থ।

মৃত্যুহার কমায়
উপরোক্ত গবেষণায় আরও দেখা গেছে, নিয়মিত ব্যায়াম করেন যারা তাদের মৃত্যুহার অন্তত এক তৃতীয়াংশ কমেছে। একদমই ব্যায়াম করেননি যারা তাদের চেয়ে সপ্তাহে অন্তত ৫১ মিনিট ব্যায়াম করেছেন, এমন ব্যক্তিদের মৃত্যুহার অনেকটাই কম। সপ্তাহের সাত দিন একেকটি সময় নির্ধারণ করে ব্যায়াম করুন। প্রতিদিন পাঁচ থেকে পনেরো মিনিট করে ব্যায়ামও সুস্থতার জন্য গুরুত্বপূর্ণ।

সারাবাংলা/আরএফ

বিজ্ঞাপন

Tags:

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন