বিজ্ঞাপন

‘অন্যায়কে এক ইঞ্চিও ছাড় দিবো না’

December 6, 2019 | 2:43 am

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: 'আমি ইমরুল কায়েশ, কেউ এক ইঞ্চি অন্যায় করলে, তাদের কাউকে ছাড় দিবো না' বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকার সিনিয়র স্পেশাল ও মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশ। বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) দুপুরে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা ১১৮ কোটি টাকার দুর্নীতি মামলায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের সাবেক দুই কর্মকর্তার জামিন শুনানির সময়, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা দুদকের সহকারী পরিচালক আতাউর রহমান সরকারকে লক্ষ্য করে তিনি এ কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

এর আগে, ওই দুর্নীতির মামলায় বিমানের সাবেক মহাব্যবস্থাপক (কার্গো) ও পরে মার্কেটিং অ্যান্ড সেলসের পরিচালক (বর্তমানে অবসর) মোহাম্মদ আলী আহসান এবং সাবেক উপমহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) ইফতেখার হোসেন চৌধুরী গত ৩ ডিসেম্বর গ্রেফতার হন। ওইদিনই তাদের কারাগারে পাঠানো হয়। ৪ ডিসেম্বর ঢাকা মহানগর সিনিয়র দায়রা ও বিশেষ জজ আদালতে তাদের পক্ষে আংশিক জামিন শুনানি হয়। কিন্তু ওই দিন আদালতের চাহিদা মতো দুদক প্রসিকিউটর ডকুমেন্ট সরবরাহ করতে না পারায় বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) অধিকতর শুনানির দিন ধার্য করেন।

আসামিদের পক্ষে ঢাকা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ও আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডভোকেট সৈয়দ রেজাউর রহমান শুনানি করেন। অপরদিকে দুদকের পক্ষে প্রসিকিউটর মাহমুদ হোসেন জাহাঙ্গীর শুনানি করেন।

বিজ্ঞাপন

আদালতের চাহিদার ভিত্তিতে ২০১২ সালের সরাসরি কোনো সার্কুলার না দেখাতে পারায় উপস্থিত মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সহকারী পরিচালক মো. আতাউর রহমান সরকারকে ডেকে আদালত জিজ্ঞাসা করেন, 'আপনি যে, মামলায় বলেছেন, ২০১২ সাল থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত আসামিরা নন সিডিউল ক্যাটাগরির কার্গো হ্যান্ডলিংয়ের ১১৮ কোটি টাকা দুর্নীতির মাধ্যমে আত্মসাৎ করেছেন। আমাকে আপনি ২০১২ সালের সার্কুলার দেখান। তখন তো নন সিডিউল ক্যাটাগরির জন্মই হয় নাই। আপনি কিভাবে লিখলেন।'

আদালত আরও বলেন, '২০১২ সালের সরাসরি সিডিউল ও নন সিডিউল ক্যাটাগরিতে ভাগ করা ছিল দেখান।' তদন্তকারী কর্মকর্তা তাও না দেখাতে পারায় তখন বিচারক বলেন, 'যার জন্ম হয়নি, তাকে আপনি কিভাবে নিয়ে এসেছেন। আমি আপনার বিরুদ্ধে দুদক চেয়ারম্যানের কাছে লিখব, শুধু শুধু মনুষকে হয়রানি করেন? একচুলও ছাড় পাবেন না। মনগড়া আইন দিয়ে মামলা করেন? এ আইন পেয়েছেন কোথায়?'

বিজ্ঞাপন

ওই  সময়  প্রসিকিউটর জাহাঙ্গীর বলেন, 'আমার কাছে একটি ডকুমেন্ট আছে, সেটা অস্পষ্ট। সময় দিন।'

তখন বিচারক আগামী সোমবার (৯ ডিসেম্বর) পর্যন্ত সময় মঞ্জুর করে অধিকতর শুনানির জন্য দিন ধার্য করেন।

বিজ্ঞাপন

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার (৩ ডিসেম্বর) দুদকের উপপরিচালক মো. নাসির উদ্দিন বাদী হয়ে দুদক সজেকা ঢাকা-১-এ মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় কারাগারে পাঠানো বিমানের সাবেক দুই কর্মকর্তাসহ বর্তমান ও সাবেক ১৬ কর্মকর্তাকে আসামি করা হয়।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এআই/একেএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন