বিজ্ঞাপন

রাজশাহীতে গরু লুট করতে ঘুমন্ত বৃদ্ধকে হত্যা, আটক ৮

December 9, 2019 | 1:05 pm

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট

রাজশাহী: রাজশাহী মহানগরীতে ঘুমন্ত অবস্থায় থাকা আব্দুল মজিদ (৫৫) নামের এক বৃদ্ধকে হত্যা করে তার চারটি গরু লুটের ঘটনায় এ পর্যন্ত ৮ জনকে আটক করেছে পুলিশ। রোববার (৮ ডিসেম্বর) পাঁচ আসামিকে আদালতের মাধ্যমে রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বাকি তিন আসামিকে সোমবার আদালতে তোলা হবে বলে। সোমবার সকাল ১১টায় রাজপাড়া থানায় সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার সাজিদ হোসেন এ তথ্য জানান।

বিজ্ঞাপন

তিনি জানান, এ ঘটনায় এ পর্যন্ত আটককৃতরা হলেন-মহানগরীর বহরমপুর এলাকার মৃত আব্দুল গফুরের ছেলে আব্দুর রহমান বাবু, হড়গ্রাম নতুন পাড়া এলাকার হারুনের ছেলে রবিউল ইসলাম, মৃত আছির উদ্দিন এর ছেলে আব্দুস সামাদ, জাবেদ আলীর ছেলে আবুল কাশেম, চন্দ্রিমা এলাকার আলীর স্ত্রী আশুরা বেগম, দাসপুকুর এলাকার আরিফুল ইসলাম, বহরমপুর এলাকার তাহসানের ছেলে মিলন এবং একই এলাকার আব্দুর রহমানের ছেলে জিন্দার আলী।

উপ-পুলিশ কমিশনার সাজিদ হোসেন জানান, ঘটনার চার দিন আগে গরু চুরি করার পরিকল্পনা করে হত্যাকারীরা। এরপর বুধবার (৪ ডিসেম্বর) দিবাগত রাতে গরুর মালিক মজিদকে প্রথমে নেশাজাতীয় দ্রব্য খাইয়ে অজ্ঞান করে। কিন্তু তাদেরকে চিনে ফেলার ভয়ে তারা মালিককে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে গরুগুলো নিয়ে যায়।

বিজ্ঞাপন

তিনি জানান, শনিবার (৭ ডিসেম্বর) পুলিশ দিবাগত রাতে প্রথমে চুরি ও বিক্রির সঙ্গে জড়িত ৫ জনকে আটক করে। তাদের দেওয়া তথ্যমতে রোববার (৮ ডিসেম্বর) আরও তিনজনকে আটক করা হয়। এদের মধ্যে দুইজন নিহত আব্দুল মজিদের কর্মচারী ছিলেন, একজন ইউনিয়ন পরিষদের ওয়ার্ড সদস্য এবং অন্যজন একটি বাসের সুপারভাইজার।

উল্লেখ্য, বুধবার (৪ ডিসেম্বর) দিবাগত গভীর রাতে মহানগরীর দাসপুকুর এলাকায় গরু লুটের উদ্দেশ্যে আব্দুল মজিদকে হত্যা করা হয়। বৃহস্পতিবার (০৫ ডিসেম্বর) সকালে লাশটি উদ্ধার করে রাজপাড়া থানা পুলিশ। এ ঘটনায় নিহতের ছেলে বাদি হয়ে অজ্ঞাতনামা কয়েকজনকে আসামি করে রাজপাড়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। নিহত আব্দুল মজিদ ওই এলাকার মৃত আব্দুল অজিজের ছেলে।

সারাবাংলা/আইই

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন