বিজ্ঞাপন

এক দরজা দিয়েই রেস্টুরেন্টে ঢুকতে পারবেন সৌদি নারীরা

December 9, 2019 | 7:56 pm

রোকেয়া সরণি ডেস্ক

এখন থেকে সৌদি আরবের রেস্টুরেন্টগুলোতে আর আলাদা দরজা দিয়ে ঢুকতে হবে না সৌদি নারীদের। সৌদি আরবের পৌর বিষয়ক মন্ত্রণালয় এক বার্তায় এ নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে। এর ফলে সৌদি আরবের রেস্টুরেন্টগুলোতে প্রবেশের ক্ষেত্রে নারীদের দীর্ঘ দিনের বৈষম্য দূর হলো।

বিজ্ঞাপন

বিবিসির খবরে বলা হয়, রোববার (৮ ডিসেম্বর) সৌদি আরবের পৌর বিষয়ক মন্ত্রণালয় ওই বার্তা প্রকাশ করেছে। বার্তায় বলা হয়েছে, এখন থেকে সৌদি নারীদের আলাদা গেট দিয়ে রেস্টুরেন্টে প্রবেশ করতে হবে না। নারী ও পুরুষের আলাদা দরজার বিষয়টি সম্পূর্ণভাবে প্রতিষ্ঠানের ওপর নির্ভর করবে।

এর আগে, সৌদি আরবের রেস্টুরেন্টগুলোতে পুরুষদের প্রবেশের জন্য ছিল আলাদা দরজা; আর নারীসহ পরিবারের অন্য সদস্যদের জন্য আলাদা দরজা রাখার বিধান ছিল বাধ্যতামূলক। নতুন আদেশের ফলে এখন নারী-পুরুষ নির্বিশেষে একই দরজা ব্যবহার করতে পারবেন। তবে কোনো রেস্টুরেন্ট চাইলে নিজেদের মতো করে নারী-পুরুষের জন্য আলাদা দরজা চালু রাখতে পারবেন।

বিজ্ঞাপন

সৌদি আরবে চলমান সমাজ সংস্কারমূলক বিভিন্ন কার্যক্রমের মধ্যেই রেস্টুরেন্টে নারীদের আলাদা প্রবেশপথের বিধানটি বাতিল করা হলো। স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো অবশ্য বলছে, এই আদেশ জারি আগে থেকেই দেশটির বিভিন্ন রেস্টুরেন্ট, ক্যাফে ও আড্ডাস্থলে নারী-পুরুষের আলাদা দরজা দিয়ে প্রবেশের বিষয়টি শিথিল হয়ে আসছিল। মন্ত্রণালয়ের ঘোষণা বিষয়টিকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিলো।

এর আগে, নারীদের গাড়ি চালানোর ওপর কয়েক দশক ধরে চলে আসা নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হয় ২০১৮ সালে। অন্যদিকে রাজকীয় ফরমান জারির মাধ্যমে এ বছরের শুরুর দিকে সৌদি আরবে নারীদের পুরুষ অভিভাবক ছাড়া চলাচলের অনুমোদন দেওয়া হয়।

মোহাম্মদ বিন সালমান ২০১৭ সালে সৌদি যুবরাজের দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই সৌদি আরবের অত্যন্ত রক্ষণশীল সমাজব্যবস্থার বিভিন্ন ক্ষেত্রে সংস্কার কাজ শুরু করেন। স্থানীয়ভাবে তার বিভিন্ন সংস্কারমূলক কার্যক্রম প্রতিবন্ধকতার মুখে পড়লেও বিশ্বজুড়ে প্রশংসা পেয়েছেন তিনি।

এদিকে, সৌদি আরবের মানবাধিকারকর্মীরা বলছেন, বিদ্যমান আইনে অনেক ক্ষেত্রেই নারীদের অধিকার হরণ করা হচ্ছে। তাদের অভিযোগ, সৌদি সরকার নানারকম সংস্কার কার্যক্রম চালালেও নারীদের অধিকার নিয়ে কাজ করছেন— এমন অনেককে আটক করে রেখেছে দেশটির আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

সারাবাংলা/আরএফ/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন