বিজ্ঞাপন

বিজয় শিখা প্রজ্বলন, আদর্শের রাজনীতি চর্চার আহ্বান নওফেলের

December 10, 2019 | 9:08 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো: বিজয় শিখা প্রজ্বলনের মধ্য দিয়ে চট্টগ্রামে মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলার মূল আয়োজন ‘মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণের’ উদ্বোধন হয়েছে। মুক্তিযোদ্ধার হাত থেকে মশাল গ্রহণ করে তরুণ প্রজন্মের কয়েকজন প্রতিনিধির হাতে তুলে দেন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান শিক্ষা ‍উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। এসময় তিনি তরুণ প্রজন্মকে আদর্শের রাজনীতি চর্চার আহ্বান জানান।

বিজ্ঞাপন

চট্টগ্রাম নগরীর এম এ আজিজ স্টেডিয়ামের মূল ফটকের সামনে বিজয় শিখা চত্বরে মঙ্গলবার (১০ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় এই অনুষ্ঠানে মুক্তিযোদ্ধা ও আওয়ামী লীগ নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

মুহুর্মুহু স্লোগানের মধ্য দিয়ে মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা পরিষদের মহাসচিব মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইউনূছের হাত থেকে প্রজ্বলিত বিজয় মশাল গ্রহণ করেন মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। তিনি সেটি তুলে দেন কয়েকজন তরুণের হাতে। রীতি অনুযায়ী তারা সেটি দিয়ে সুউচ্চ টাওয়ারে বিজয় শিখা প্রজ্বলন করেন।  ডিসেম্বর মাস জুড়ে প্রজ্বলিত থাকবে এই বিজয় শিখা।

বিজ্ঞাপন

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেন, ‘বাঙালি জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান মুক্তিযোদ্ধারা তাদের বিজয়ের শিখা আগামী প্রজন্মের হাতে তুলে দিয়েছেন। আমরা তরুণ প্রজন্ম, আমাদের সেই শিখা জাগ্রত রাখতে হবে। কিভাবে আমরা সেটা রাখব? বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ চর্চার মাধ্যমে। শৃঙ্খলার সঙ্গে রাজনীতি চর্চার মাধ্যমে। আমরা সবাই বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্ব সোনার দেশ গঠনে আত্মনিয়োগ করব। আসুন, আমরা সবাই দেশ গড়ার জন্য আদর্শের চর্চার শপথ নিই।’

বিজয় শিখা প্রজ্বলন, আদর্শের রাজনীতি চর্চার আহ্বান নওফেলের

এসময় স্লোগানরত নেতাকর্মীদের উদ্দেশে নওফেল বলেন, ‘পেশীশক্তি দেখাবেন না। নিজেদের মধ্যে বিশৃঙ্খলা করবেন না। আসুন, সবাই মিলে আদর্শের রাজনীতি করি।’

বিজয় শিখা প্রজ্বলন অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন বিজয় মেলার মূল উদ্যোক্তা প্রয়াত এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর স্ত্রী নগর মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী হাসিনা মহিউদ্দিন, নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী। সঞ্চালনা করেন নগর আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী।

এসময় মুক্তিযোদ্ধা বদিউল আলম, পাল্টু লাল সাহা, নগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক চন্দন ধর, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মশিউর রহমান চৌধুরী, প্রচার সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুক, কাউন্সিলর জহরলাল হাজারী, নগর যুবলীগের আহ্বায়ক মহিউদ্দিন বাচ্চু, নগর ছাত্রলীগের সভাপতি ইমরান আহমেদ ইমু ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া দস্তগীর,আওয়ামী লীগ নেতা হাসান মনসুর, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আবুল হাসনাত মোহাম্মদ বেলাল, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আরশাদুল আলম বাচ্চু, নুরুল আজিম রণি উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে, গত ১ ডিসেম্বর নগরীর আউটার স্টেডিয়ামে পণ্যমেলা উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে বিজয় মেলা শুরু হয়। পণ্যমেলা উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীন।

এরপর বিজয় শিখা প্রজ্বলনের মধ্য দিয়ে নগরীর জিমনেশিয়াম প্রাঙ্গণে বিজয় মঞ্চে শুরু হয়েছে সাত দিনের মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠান।

বিজয় মঞ্চে স্মৃতিচারণের পাশাপাশি প্রতিদিন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হবে। ১৫ ডিসেম্বর এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বিজয় মঞ্চে নাগরিক শোকসভা হবে। এতে প্রধান অতিথি থাকবেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য আমির হোসেন আমু।

১৬ ডিসেম্বর সকাল ৯টায় এম এ আজিজ স্টেডিয়াম চত্বর থেকে বের হবে বিজয় র‌্যালি। এতে নেতৃত্ব দেবেন মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।

সারাবাংলা/আরডি/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন