রবিবার ২৬ জানুয়ারি, ২০২০ ইং

চ্যাম্পিয়নস লিগের নক আউট নিশ্চিত যাদের

ডিসেম্বর ১১, ২০১৯ | ১১:০০ পূর্বাহ্ণ

স্পোর্টস ডেস্ক

মঙ্গলবার (১০ ডিসেম্বর) ছিল চ্যাম্পিয়নস লিগের রাত। গ্রুপ ‘ই’, ‘এফ’, ‘জি’ ও ‘এইচ’র শেষ ম্যাচে মোট ১৬ দল একে অপরের মুখোমুখি হয় নক আউট পর্ব নিশ্চিতের লক্ষ্যে। শেষ পর্যন্ত এখান থেকে বাদ পড়েছে মোট আটটি দল আর আটটি দল নিশ্চিত করেছে রাউন্ড অব-১৬। গ্রুপ পর্বের জমজমাট লড়াইয়ে বাদ পড়েছে গেল মৌসুমে সেমি ফাইনাল খেলা আয়াক্স, ইতালিয়ান সিরি আ’র শীর্ষ দল ইন্টার মিলানের মতো দলও।

বিজ্ঞাপন

গ্রুপ ‘ই’র শেষ ম্যাচে সমীকরণ দাঁড়ায় ঘরের মাঠে সালজবুর্গের বিপক্ষে কেবল ড্র করলেই নিশ্চিত হয়ে যাবে লিভারপুলের শেষ ১৬। আর সালজবার্গ জিতলে তাদের সম্ভবনা থাকবে পরের পর্বের। তবে সেক্ষেত্রে নাপোলিকে জিততেই হতো নক আউট নিশ্চিত করতে। তবে তেমন কিছু ঘটেনি গ্রুপ ‘ই’তে। অনুমিতভাবেই নিজেদের মাঠে জয় পেয়েছে লিভারপুল। আর জেঙ্ককে উড়িয়ে দিয়েছে নাপোলি। অ্যানফিল্ডে ১০০ সেকেন্ডের রোমাঞ্চে ২-০’তে জিতে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে নক আউটে ইয়্যুর্গেন ক্লপের শিষ্যরা। আর কার্লো আনচেলোত্তির নাপোলি’র হয়ে আর্কাডিউজ মিলিকের হ্যাটট্রিকে ৪-০ ব্যবধানে জিতেছে নাপোলি। আর এতেই নক আউট পর্ব নিশ্চিত লিভারপুল আর নাপোলির।

বিজ্ঞাপন

অন্যদিকে গ্রুপ ‘এফ’এ সান সিরোতে বার্সাকে হারাতেই হতো ইন্টারের সেই সঙ্গে বুরুশিয়ার ম্যাচের দিকেও নজর রাখতে হতো আন্তোনিও কন্তের দলকে। তবে আগেই শেষ ১৬ নিশ্চিত করা বার্সেলোনার কাছে ঘরের মাঠে ২-১ গোলের ব্যবধানে হেরেছে ইন্টার। অন্যদিকে ঠিকই স্লাভিয়া প্রাগকে ২-১ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে বার্সার সঙ্গী হয়েছে মার্কো রয়েসের বুরুশিয়া ডর্টমুন্ড।

চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ ‘জি’তে অবস্থান করছিল আরবি লেইপজিগ, অলিম্পিক লিও, বেনফিকা আর জেনিত। আগেই শেষ ১৬ নিশ্চিত হওয়ায় লেইপজিগ আর লিও মধ্যকার ম্যাচ ছিল অনেকটা নিয়মরক্ষার। তবে অপর ম্যাচটি অর্থাৎ বেনফিকা ও জেনিতের মধ্যকার ম্যাচটি কিছুটা হলেও গুরুত্বপূর্ণ ছিল। কারণ গ্রুপ পর্বে যে দল তৃতীয় স্থানে থাকবে ইউরোপা লিগে খেলার সুযোগ মিলবে তাদের।

তবে অঘটন ঘটেছে ‘এইচ’ গ্রুপে। শেষ ম্যাচের আগেও পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে থেকেও বাদ পড়তে হয়েছে আয়াক্সকে। গেল মৌসুমে রিয়াল মাদ্রিদ ও জুভেন্টাসকে হারিয়ে সেমি ফাইনালে উঠে এসেছিল আয়াক্স। আর এই মৌসুমেই বাদ পড়তে হলো গ্রুপ পর্ব থেকেই। ম্যাচ শুরুর পূর্বে পরিসংখ্যান বলছিল এই গ্রুপ থেকে আয়াক্স, ভ্যালেন্সিয়া ও চেলসি সুযোগ থাকছে তিন দলের যেকারোরই নক আউটে নাম লেখানোর।

ক্রুইফ অ্যারেনাতে আয়াক্সকে হারাতে পারলেই নিশ্চিত ভ্যালেন্সিয়ার নিশ্চিত পরের পর্ব আর লিলেকে হারাতে পারলে চেলসি উৎরে যাবে শেষ ১৬’তে। তবে গেল মৌসুমে অসাধারণ পারফরম্যান্স করা আয়াক্সকে তাদের ঘরেই হারানোটা সহজ ছিল না ভ্যালেন্সিয়ার জন্য। তবে শেষ পর্যন্ত ১-০’তে ম্যাচ জিতে নিশ্চিত করেছে নক আউট। আর ফ্র্যাঙ্ক ল্যাম্পার্ডের দল স্ট্যামফোর্ড ব্রীজে লিলেকে ২-১ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে ভ্যালেন্সিয়ার সঙ্গী হয়ে দ্বিতীয় দল হিসেবে শেষ ১৬’তে নাম লিখিয়েছে। আর এই দুই দল থেকে মাত্র এক পয়েন্ট কম ১০ পয়েন্ট অর্জন করেও তৃতীয় হয়ে খেলতে হচ্ছে উয়েফা ইউরোপা লিগ।

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন