বিজ্ঞাপন

সাংবাদিকদের জেলে পাঠানোয় শীর্ষে চীন

December 11, 2019 | 12:35 pm

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

সাংবাদিকদের জেলে পাঠানোয় তুরস্কের আগের রেকর্ড ভেঙে শীর্ষস্থানে উঠে এসেছে চীন। ২০১৯ সালে ৪৮ জন সাংবাদিককে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়ে তালিকার শীর্ষে উঠে এসেছে দেশটি। সাংবাদিকদের অধিকার নিয়ে কাজ করা নিউইয়র্কভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংগঠন কমিটি টু প্রটেক্ট জার্নালিস্টের বার্ষিক প্রতিবেদনে এই তথ্য উঠে এসেছে। বুধবার (১১ ডিসেম্বর) এ খবর প্রকাশ করেছে দ্য নিউইয়র্ক টাইমস।

বিজ্ঞাপন

এই বার্ষিক অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে কমিটি টু প্রটেক্ট জার্নালিস্ট উল্লেখ করেছে, চতুর্থ বছরের মতো বিশ্বব্যাপী ২৫০ সাংবাদিককে বিভিন্ন ঘটনায় কারাগারে পাঠিয়েছে কর্তৃপক্ষ। তাদের অধিকাংশই বিভিন্ন একনায়কের সমালোচনা করার কারণে কারাদণ্ডাদেশের মুখে পড়েছেন। চীনের জিনজিয়াং প্রদেশের সাংবাদিকদের মতামত দমনের ঘটনা সামনে আসার ঘটনায় এই তালিকার শীর্ষস্থান পেয়েছে চীন। আর স্বাধীন সাংবাদিকতাকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করার পর থেকেই তুরস্কে সাংবাদিকদের চাকরি হারানো এবং নিপীড়নের ঘটনা নিয়ে তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে আছে দেশটি।

এই প্রতিবেদনে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, সাংবাদিকদের মুক্ত মত নিয়ন্ত্রণের ক্ষেত্রে সবচেয়ে এগিয়ে আছে মধ্যপ্রাচ্য। সৌদি আরব ও মিশর এ তালিকায় তৃতীয়স্থানে অবস্থান করছে। কমিটি টু প্রটেক্ট জার্নালিস্ট জানিয়েছে, চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিন পিং, তুরস্কের এরদোয়ান, সৌদি যুবরাজ মোহাম্মাদ বিন সালমান ও মিশরের প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাত্তাহ এল সিসি তাদের বিরুদ্ধে গণমাধ্যমে সমালোচনা সহ্যই করতে পারেন না। এর মধ্যে শি জিন পিং সবচেয়ে কঠোর হাতে মুক্তমত দমন করছে বলে ওই প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এছাড়াও, ২০১৯ সালে ভিয়েতনামে ১২, ইরানে ১১, রাশিয়া ও ক্যামেরুনে ৭, বাহরাইন ও আজারবাইজানে ৬, সিরিয়ায় ৫, বুরুন্ডি, রুয়ান্ডা ও মরক্কোয় ৪ জন করে সাংবাদিককে জেলে পাঠানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ১৯৮১ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকেই বিশ্বব্যাপী সাংবাদিক ও গণমাধ্যমের অধিকার নিয়ে কথা বলার বলিষ্ঠ কন্ঠস্বর হিসেবে নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছে কমিটি টু প্রটেক্ট জার্নালিস্ট। এ বছরের ডিসেম্বর মাসের এক তারিখ পর্যন্ত পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে এই প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে তারা। ডিসেম্বর পরবর্তী সময়ে যে সকল সাংবাদিকদের জেলে পাঠানো হয়েছে তাদের হিসাব পরবর্তী বার্ষিক প্রতিবেদনে প্রকাশ করা হবে।

সারাবাংলা/একেএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন