মঙ্গলবার ২৮ জানুয়ারি, ২০২০ ইং

ছাত্রলীগ নেত্রী ফারমিন মৌলির স্মরণে ঢাবিতে মোমবাতি প্রজ্বলন

ডিসেম্বর ১২, ২০১৯ | ৯:২২ অপরাহ্ণ

ইউনিভারসিটি করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সাবেক ছাত্রী বিষয়ক সম্পাদক ও পিরোজপুর জেলা মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সভাপতি ফারমিন মৌলি স্মরণে মোমবাতি প্রজ্বলন কর্মসূচি পালন করেছে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ। বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা ৭টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) মধুর ক্যান্টিনে এই কর্মসূচি পালন করা হয়।

বিজ্ঞাপন

কর্মসূচিতে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ মোমবাতি প্রজ্বলন ও কালো ব্যাজ ধারণ করে। তার স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ পিরোজপুর জেলা শাখার সভাপতি পদটি আজীবনের জন্য শূন্য ঘোষণা করা হয়।

এ কর্মসূচীতে উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল, সাধারণ সম্পাদক মো. আল মামুন, ছাত্রলীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) লেখক ভট্টাচার্য, মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি সনেট মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক ইয়াসির আরাফাত তূর্য, মহানগর দক্ষিণ শাখার সভাপতি সোহেল রানা, সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেন, কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি এসএম জাকারিয়া ইসলাম, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক আফসানা নূর দিনিয়া, ঢাবির স্যার এ.এফ. রহমান হল শাখার সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেনসহ অন্যান্যরা।

বিজ্ঞাপন

কালো ব্যাজ ধারণ ও মোমবাতি প্রজ্বলন শেষে ফারমিন মৌলির স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করেন মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের নেতৃবৃন্দ।

মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক মো. আল মামুন বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, ছাত্রলীগের সাবেক নেত্রী, মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ পিরোজপুর জেলা শাখার সভাপতি ফারমিন মৌলির অকাল মৃত্যুতে ছাত্র রাজনীতিতে অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে। আমরা তার মৃত্যুতে গভীরভাবে শোকাহত। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়নের জন্য তার নিরলস পরিশ্রম ও অবদান মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ আজীবন স্মরণ করবে।

তিনি বলেন, তার স্মৃতির প্রতি সম্মান ও শ্রদ্ধা জানিয়ে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ পিরোজপুর জেলা শাখার সভাপতি পদটি আজীবনের জন্য আমরা শূন্য ঘোষণা করেছি। ফারমিন মৌলির স্মৃতি আজীবন আমাদের হৃদয়ের মণিকোঠায় বেঁচে থাকবে।

গত ১০ ডিসেম্বর বাগেরহাট জেলায় এক সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় ফারমিন মৌলির। ঢাকার একটি বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ছিলেন তিনি।

সারাবাংলা/কেকে/আইই

Advertisement
বিজ্ঞাপন

Tags:

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন