মঙ্গলবার ২৮ জানুয়ারি, ২০২০ ইং

যুবলীগকে ঢেলে সাজানোর উদ্যোগ, তৃণমূলে কেন্দ্রের চিঠি

ডিসেম্বর ১২, ২০১৯ | ১০:৪০ অপরাহ্ণ

মীর মেহেদী হাসান, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: তৃণমূল পর্যায় থেকে আওয়ামী যুবলীগকে ঢেলে সাজানোর উদ্যোগ নিয়েছে কেন্দ্রীয় কমিটি। এরই অংশ হিসেবে গত মঙ্গলবার (১০ ডিসেম্বর) থেকে তৃণমূল নেতাদের কাছে কেন্দ্রের পক্ষ থেকে সাংগঠনিক নির্দেশনার চিঠি পাঠানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এছাড়া মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, যুবলীগ প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শেখ ফজলুল হক মনি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জীবনভিত্তিক রচনা প্রতিযোগিতা, চিত্র প্রদর্শনী, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার আয়োজন করতে তৃণমূলে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

যুবলীগের নতুন নেতৃত্ব পাওয়ার পর প্রথম এমন পদক্ষেপ নিয়েছেন যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যানের ছেলে শেখ ফজলে সামস পরশ। তিনি যুবলীগের বর্তমান নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান। দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকেই যুবলীগকে বিতর্কমুক্ত করে ত্যাগী, পরিশ্রমী নেতৃত্ব নিয়ে আসতে কাজ করছেন নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান ও সাধারণ সম্পাদক। তারা পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের কাজও শুরু করেছেন।

বিজ্ঞাপন

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, ১৫ দিনের সময় বেঁধে দিয়ে আগ্রহী নেতাদের কাছ থেকে জীবনবৃত্তান্ত সংগ্রহ করা হচ্ছে। সেখান থেকে যাচাই-বাছাই করে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হবে। এর পাশাপাশি ‍তৃণমূলকেও ঢেলে সাজাতে সংগঠনটি কাজ করছে। নেতাকর্মীদের আশা, এর মধ্যদিয়ে সংকট কাটিয়ে আওয়ামী লীগের অন্যতম সহযোগী এই সংগঠনটি এগিয়ে যাবে।

দলীয় সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার (১০ ডিসেম্বর) বিকেল থেকে কুরিয়ারের মাধ্যমে জেলা ও মহানগর নেতাদের কাছে যুবলীগের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ ও সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল স্বাক্ষরিত নির্দেশনা সংবলিত চিঠি পাঠানোর কাজ শুরু হয়েছে।

যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল এ বিষয়ে সারাবাংলাকে বলেন, ‘আমরা যুবলীগকে নতুন আঙ্গিকে সামনে নিয়ে যেতে চাই। এরই ধারাবাহিকতায় নেতাদের কাছে চিঠি পাঠানো শুরু হয়েছে। এছাড়া শীর্ষ নেতাদের পক্ষ থেকে তৃণমূলে শুভেচ্ছা কার্ডও পাঠানো হচ্ছে।’

যুবলীগের এমন উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন যুবলীগের ঢাকা মহানগর উত্তরের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাকির হোসেন বাবলু। তিনি বলেন, ‘সংগঠনের এমন উদ্যোগ অবশ্যই প্রশংসা পাওয়ার মতো। সঠিক পদক্ষেপের কারণে দল আরও গতিশীল হবে বলে আশা করি।’

এদিকে, জেলা-মহানগর এবং তাদের অধীনস্থ উপজেলা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড নেতাদের পোস্টার, ব্যানার, ফেস্টুন, প্ল্যাকার্ড ও বিলবোর্ড করার আগে অনুমতি নেওয়ার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। চিঠিতে বলা হয়েছে— সংগঠনের শৃঙ্খলাবিরোধী কার্যকলাপের সঙ্গে জড়িত বা সংগঠনের অননুমোদিত কোনো ব্যক্তি পোস্টার, ব্যানার, ফেস্টুন, প্ল্যাকার্ড ও বিলবোর্ড বানাতে পারবেন না।

পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত জেলা, মহানগর, উপজেলা, ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন কমিটি বিলুপ্ত করা বা নতুন কমিটি গঠন করা যাবে না। যে সব জেলা, মহানগর, উপজেলা, ওয়ার্ড ও ইউনিয়নে বর্তমানে কমিটি নেই চিঠি পাওয়ার সাতদিনের মধ্যে তার তালিকা কেন্দ্রে পাঠাতে হবে।

কেন্দ্রীয় যুবলীগের চিঠিতে বলা হয়— নানা চড়াই-উতরাই, ঘাত-প্রতিঘাত, অত্যাচার-নির্যাতন, জেল-জুলুম কোনো কিছুই এই সংগঠনের অগ্রযাত্রা ব্যাহত করতে পারেনি। একটি দিনের জন্যও যুবলীগ রাজপথ ছেড়ে যায়নি বা আদর্শচ্যুত হয়নি। তাই যুবলীগ আজ দেশের প্রগতিশীল যুব সমাজের আস্থার ঠিকানা এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য ও স্নেহধন্য সহযোগী সংগঠন।

সারাবাংলা/এমএমএইচ/একে

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
‘বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধকে অস্বীকার করে রাজনীতির সুযোগ নেই'বিষয় কোড নেই, আবেদনের অযোগ্য চাকরিতে, শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদপ্রস্তুতিতে ‘ঘাটতি নেই’, আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ২ সাংবাদিককে মারধর করা সেই এএসআই প্রত্যাহারহিলিতে পৌঁছেনি থার্মাল স্ক্যানার, সচেতনতায় সীমাবদ্ধ কার্যক্রমআমিন বাজারে দূষণবিরোধী অভিযান, পাইরোলাইসিস কারখানা ও ভাটা উচ্ছেদটাঙ্গাইলে নবম শ্রেণির তিন ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ, আটক ৪চট্টগ্রামে কর্মরত চীনা নাগরিকদের তথ্য নেওয়া হচ্ছে৩০ জানুয়ারি থেকে ৩ ফেব্রুয়ারি অস্ত্র প্রদর্শন ও বহনে নিষেধাজ্ঞাকরোনাভাইরাস প্রতিরোধে শাহজালালে যাত্রীদের থার্মাল স্ক্যানিং সব খবর...
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন