বিজ্ঞাপন

ব্যান্ডেজের জুতা পড়ে দৌড়ে স্বর্ণজয়

December 15, 2019 | 11:55 pm

স্পোর্টস ডেস্ক

‘ইচ্ছে থাকলে উপায় হয়’। আরও একবার এটি সত্য প্রমাণ করে দিলেন ১১ বছর বয়সি অ্যাথলেট রিয়া বুলস। দুধের স্বাদ ঘোলে মেটানোর প্রচেষ্টা করে শেষতক দুধেরই স্বাদ পেয়েছে ফিলিপাইনের এই অ্যাথলেট।

বিজ্ঞাপন

ইলোইলো স্কুলের ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় ৪০০, ৮০০ এবং ১৫০০ মিটারের দৌড়ে জয় লাভ করে এই কিশোরী অ্যাথলেট। ছিনিয়ে নেয় তিন তিনটি স্বর্ণপদক। এখানেই শেষ হয়ে যেতে পারতো তার গল্প।

কিন্তু গল্পের মোড় ঘু্রে যায় যখন রিয়া নিজের রেস শেষ করে বসে বাকিদের ইভেন্ট দেখছিলো তখন। সবার নজর পড়ে তাঁর পায়ের দিকে। কি ছিলো তার সেই পায়ে? কেনই বা ঘু্রে গেলো গল্পের পটভূমি?

রিয়ার পায়ে ছিলো না আসল জুতো। সে পায়ে ব্যান্ডেজ করে জুতার আদলে পা আবৃত করে রেসে অংশ নেয়। যার উপর সবুজ রঙ দিয়ে আঁকা নাইকির লোগো।

বিজ্ঞাপন

অর্থাভাবে জুতা কিনতে পারছিলো না এই কিশোরী অ্যাথলেট। কিন্তু জুতার অভাব তাকে আটকে রাখতে পারেনি। বাধ সাধতে পারেনি তার প্রতিভায়। ইচ্ছে শক্তি পৃথিবীর সবচেয়ে বড় শক্তি সেটি সবার চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিলেন ১১ বছর বয়সি এই অ্যাথলেট।

তাকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লেখালেখির পর অনেকেই তাকে স্পন্সর করতে আগ্রহ দেখায়। এই ঘটনার কিছুদিন পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাঁর আবার একটি ছবি প্রকাশ করা হয় যেখানে দেখা যায় জুতার দোকানে সে নতুন জুতা পড়ে দেখছে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এনএ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন