বিজ্ঞাপন

ধর্ষণ মামলায় বিজেপি নেতা কুলদীপ সিঙ্গারের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

December 20, 2019 | 4:02 pm

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২০১৭ সালে উত্তর প্রদেশের আলোচিত উননাও ধর্ষণ মামলায় ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) সাবেক আইন প্রণেতা কুলদীপ সিং সিঙ্গারকে যাবজ্জীবন কারদণ্ড এবং আড়াই মিলিয়ন রুপি জরিমানায় দণ্ডিত করেছে দিল্লির একটি আদালাত। খবর বিবিসি।

বিজ্ঞাপন

এর আগে, ২০১৭ সালে চাকরি দেওয়ার লোভ দেখিয়ে ১৭ বছর বয়সী এক ভারতীয় নারীকে আটকে রেখে সপ্তাহব্যাপী ধর্ষণের দায়ে অভিযুক্ত ছিলেন উত্তর প্রদেশের বিজেপি নেতা কুলদীপ সিঙ্গার। তার বিরুদ্ধে ভারতের নারী ও শিশু সুরক্ষা আইনে একটি মামলা হয়েছিল। ওই মামলায় পুলিশ কুলদীপের ভাই অতুল সিঙ্গারসহ ছয় জনকে আটক করতে সক্ষম হয়। কিন্তু অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র রাখার দায়ে ভিকটিমের বাবাকেও আটক করে পুলিশ। পরে পুলিশ হেফাজতে তার মৃত্যু হয়। বাবার মৃত্যুর পর ভিকটিম আত্মহত্যার চেষ্টা করলে এই মামলা ভারতব্যাপী আলোচনায় আসে।

এছাড়াও, ২০১৮ সালের  জুলাইয়ে একটি রহস্যময় গাড়ি দুর্ঘটনায় ধর্ষণের অভিযোগ আনা ওই নারী ও তার আইনজীবী আহতাবস্থায় বেঁচে গেলেও, তার সাথে থাকা দুইজন আত্মীয়র মৃত্যু হয়। ওই দুর্ঘটনার পরিকল্পনাকারী হিসেবে কুলদীপ সিঙ্গারকেই দায়ী করেছিলেন ভিকটিমের মা।

বিজ্ঞাপন

আরও পড়ুন- গাড়ি দুর্ঘটনা নাকি ‘ধর্ষণের শিকার’ নারীকে হত্যাচেষ্টা?

এদিকে, ধর্ষণের শিকার ওই নারী জানান, ঘটনার পরেই তিনি পুলিশের কাছে এ ব্যাপারে অভিযোগ লেখাতে গেলে তারা তা গ্রহণ করতে অস্বীকৃতি জানায়। পরে তারা ওই অভিযোগ গ্রহণ করলেও নিয়ম মেনে তদন্তের জন্য আগ্রহী হয়নি। এ বছরের আগষ্ট থেকে ওই ধর্ষণের ঘটনা নিয়ে বিজেপি সরকারের কড়া সমালোচনা শুরু হলে, মামলাটি পুনরায় বিচারিক কার্যক্রমের আওতায় আসে। তার ভিত্তিতেই ওই অভিযুক্ত বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে এ রায় ঘোষণা করেছে আদালত।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/একেএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন