বিজ্ঞাপন

পণ্যের আড়ালে ইয়াবা পাচারে লরির মালিক-চালক

January 5, 2020 | 6:01 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো: চট্টগ্রাম নগরীতে একটি লরিতে তল্লাশি করে সাত হাজার ইয়াবা উদ্ধার করেছে নগর গোয়েন্দা পুলিশ। লরির চালককে গ্রেফতারের পাশাপাশি গাড়িটিও জব্দ করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

পুলিশ জানিয়েছে, পণ্য পরিবহনের আড়ালে ওই লরির মালিক ও চালক মিলে কক্সবাজার থেকে ইয়াবা পাচার করেন। এর আগেও একাধিকবার তারা ওই লরিতে করে ইয়াবা নিয়ে নগরীতে এসেছেন।

রোববার (৫ জানুয়ারি) ভোরে নগরীর ডবলমুরিং থানার ডিটি রোডে ওয়াপদা কলোনি মসজিদের সামনে লরিটিতে তল্লাশি চালায় পুলিশ।

বিজ্ঞাপন

গ্রেফতার মো. রাসেদুল ইসলাম (২৩) কক্সবাজার জেলার চকরিয়া উপজেলার পূর্ব ডুমখালী গ্রামের মোহাম্মদ ছাবেরের ছেলে।

নগর গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক মোমিনুল হাসান সারাবাংলাকে জানান, রাসেদুল লরি নিয়ে কক্সবাজার থেকে চট্টগ্রামে আসার পথে রামু থেকে ইয়াবাগুলো সংগ্রহ করে। সেগুলো নগরীর হালিশহরে হস্তান্তরের কথা ছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালানো হয়। চালকের আসনের নিচে ইয়াবাগুলো রাখা হয়েছিল। চালকের আসনে বসা ছিল রাসেদুল। তল্লাশি করে ইয়াবাগুলো উদ্ধারের পর তাকে আটক করা হয়।

বিজ্ঞাপন

নগর গোয়েন্দা পুলিশের সহকারী উপপরিদর্শক শন্তু শীল সারাবাংলাকে জানিয়েছেন, লরির মালিক মহিউদ্দিন মূল ইয়াবা ব্যবসায়ী। লরি কক্সবাজারে যাওয়ার সময় মহিউদ্দিনও গাড়িতে ছিলেন। রামু থেকে ইয়াবাগুলো সংগ্রহ করে মহিউদ্দিন গাড়িতে তুলে দেন। রাসেদুল সেগুলো হেফাজতে রেখে চট্টগ্রামে আসেন। তবে মহিউদ্দিন রামু থেকে আর ওই গাড়িতে ওঠেননি।

আটক রাসেদুল ও পলাতক মহিউদ্দিনের বিরুদ্ধে নগর গোয়েন্দা পুলিশের  উপপরিদর্শক মো. ফরহাদ মহিম বাদী হয়ে ডবলমুরিং থানায় মাদক আইনে মামলা দায়ের করেছেন।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/আরডি/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন