বিজ্ঞাপন

বিচারহীনতার সংস্কৃতি থেকে বের হয়ে আসার আহ্বান মহিলা পরষিদের

January 6, 2020 | 6:24 pm

ঢাবি করেসপন্ডেন্ট

ঢাবি: বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ডা. ফওজিয়া মোসলেম বলেছেন, ২০১৯ সালে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে প্রায় চার হাজারেরও বেশি। কিন্তু বিচার হয়েছে মাত্র একটির। আমারা এই বিচারহীনতার সংস্কৃতি থেকে বের হয়ে আসতে চাই।

বিজ্ঞাপন

সোমবার (৬ জানুয়ারি) বিকেল সাড়ে তিনটায় ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণের প্রতিবাদে রাজু ভাস্কর্যের সামনে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ আয়োজিত মানববন্ধন তিনি এ কথা বলেন।

মানববন্ধনে ধর্ষণের ঘটনায় দোষীদের দ্রুত ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমাদের দেশে যখন প্রধানমন্ত্রী চান তখন বিচার হয়, অন্য সময় হয় না। আমরা এই রাজনীতি থেকে বের হতে চাই।

বিজ্ঞাপন

তিনি আইনমন্ত্রীর কথা উল্লেখ করে বলেন, ‘দেশের আইনমন্ত্রী কি কাজ করেন তা আমরা জানি না। তাকে জনগণের কাছে জবাবদিহি করতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু সোনার বাংলাদেশ গড়ে তুলতে চেয়েছিলেন। কিন্তু আজ সেখানে কিছু ব্যাধি ঢুকে পড়েছে। আজ ক্ষমতাধররা সমাজকে পরিচালনা করছে। তারা দুর্নীতিগ্রস্থ ক্ষমতার ওপর ভর করে সমাজ পরিচালনা করছে।’

বিজ্ঞাপন

এ সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উইমেন অ্যান্ড জেন্ডার স্টাডিজ বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. সৈয়দ শায়খ ইমতিয়াজ বলেন, ‘এদেশে তিন বছরের শিশু থেকে শুরু করে ষাট বছরের বৃদ্ধাও ধর্ষিত হয়। বাংলাদেশে প্রচলিত যে আইন, সেই আইনের মাধ্যমে আমরা ধর্ষণের বিচার পাই না।’

তিনি ধর্ষককে দ্রুত সনাক্ত করে যথাযথ বিচারের আওতায় আনার আহ্বান জানান এবং প্রধানমন্ত্রী কাছে একটি দ্রুত বিচার আইনের প্রণয়নের দাবি জানান।

বিজ্ঞাপন

মানববন্ধনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মালেকা বানু, আইনজীবী মাসুদা রেহেনা বেগম প্রমুখ।

সারাবাংলা/এসএমআর/পিটিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন