শনিবার ১৮ জানুয়ারি, ২০২০ ইং

সিএএ ইস্যু: সুপ্রিমকোর্টে কেরালা রাজ্য সরকার

জানুয়ারি ১৪, ২০২০ | ১২:৪৩ অপরাহ্ণ

ভারতের প্রথম রাজ্য হিসেবে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের (সিএএ) বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিমকোর্টে পিটিশন দাখিল করেছে কেরালার রাজ্য সরকার। সিএএ ভারতের সংবিধানের ১৪, ২১ এবং ২৫ ধারার সাথে সাংঘর্ষিক উল্লেখ করে এই আইনকে অবৈধ ঘোষণার আবেদন করে বামপন্থি কেরালা সরকার। মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) ওই আবেদন আমলে নিয়ে জানুয়ারির ২২ তারিখ শুনানির দিন ধার্য করেছে সুপ্রিম কোর্ট। খবর এনডিটিভি।

বিজ্ঞাপন

শুধুমাত্র সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনই নয়, ২০১৫ সালে প্রণীত সংশোধিত পাসপোর্ট আইনের বৈধতাও চ্যালেঞ্জ করা হয়েছে কেরালা রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে।

এর আগে, ডিসেম্বরে কেরালার বিধানসভায় সরকার-বিরোধী দল ঐক্যমতের ভিত্তিতে সিএএ বাতিলের প্রস্তাবটি পাস করা হয়।

বিজ্ঞাপন

আরও পড়ুন- কেরালা বিধানসভায় সিএএ স্থগিতের প্রস্তাব পাস

এদিকে, কেরালা সরকারের পক্ষ থেকে ওই আবেদনে বলা হয়েছে, ভারতীয় নাগরিকদের সাংবিধানিক সমানাধিকার খর্ব করছে সিএএ। এছাড়াও ভারতের সংবিধানের মৌলিক বৈশিষ্ট্য ধর্মনিরপেক্ষতা এই আইনের কারণে প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছে। তাই, এই আইনকে অবিলম্বে অবৈধ ঘোষণা করতে হবে।

প্রসঙ্গত, সিএএ পাস করার মাধ্যমে বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্থানের মতো মুসলিম অধ্যুষিত দেশ থেকে নির্যাতনের মুখে পালিয়ে আসা অমুসলিমদের অগ্রাধিকারভিত্তিতে নাগরিকত্ব দেওয়ার বিষয়টি ভারতে স্বীকৃত হয়েছে। আবার এনআরসির নামে মুসলিমদের হয়রানি করা হচ্ছে এবং তাদেরকে সীমান্ত পার হয়ে বাংলাদেশে যেতে বাধ্য করা হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

ইতোমধ্যেই, সিএএ’র বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে ৬০টি রিট পিটিশন দায়ের করা হয়েছে সুপ্রিমকোর্টে। বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সংসদ সদস্য এবং বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে ওই রিটগুলো করা হয়েছে।

এই রিটের ব্যাপারে কেরালা রাজ্যের গভর্নর আরিফ মোহাম্মাদ খান জানিয়েছে, কেন্দ্র সরকারের আওতাধীন বিষয় নিয়ে সুপ্রিমকোর্টে গিয়ে অনধিকার চর্চা করেছে কেরালা রাজ্য সরকার।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন