বিজ্ঞাপন

নারী ও শিশু নিপীড়নকারী ইহুদি ধর্মগুরু গ্রেফতার

January 14, 2020 | 3:23 pm

রোকেয়া সরণি ডেস্ক।।

নারী ও শিশুদের ‘দাস’ করে রাখার অভিযোগে এক ইহুদি ধর্মগুরুকে গ্রেফতার করেছে ইসরায়েলি পুলিশ। পুলিশের অভিযোগ, ওই ধর্মগুরু অন্তত ৫০ নারী ও শিশুর ওপর অমানবিক নির্যাতন চালিয়েছেন। শুধু তাই নয়, নারীদের নানাভাবে জিম্মি রেখে প্রচুর অর্থ হাতিয়ে নিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ওই ধর্মগুরু জেরুজালেমের আল্ট্রা-অর্থোডক্স জেলায় থাকেন। ধর্মের নামে নারী ও শিশুদের দিয়ে কঠোর পরিশ্রমের কাজগুলো করান। পরিবারের সঙ্গেও তাদের যোগাযোগ রাখতে দেন না। অনেক নারী স্বামী-সন্তান বাড়িতে রেখে দিনের পর দিন এই ধর্মগুরুর অধীনে দাস হিসেবে দিন কাটাচ্ছে। যে নারীদের সন্তানের বয়স ৫ বছরের নিচে, তারাই কেবল সন্তান সঙ্গে রাখার অনুমতি পায়।

কিছু ভিডিও ফুটেজের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, যে নারীরা পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে ধরা পড়েছে, তাদের ওপর পরবর্তীতে নির্যাতন আরো বেড়েছে। তাদেরকে দিয়ে দিনরাত পরিশ্রম করানো হয়েছে। কিছু নারীও গোপনে এই ব্যাপারে মুখ খুলেছে বলে জানায় পুলিশ।

বিজ্ঞাপন

দাসত্ব বরণ করে জীবন কাটানো এই নারী ও শিশুদের স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে নেওয়ার বিরোধিতা করেন জেরুজালেমের অনেক ধর্মীয় নেতারাই- এমনটাই জানিয়ে ইসরায়েলি পুলিশ বলেছে, নিপীড়িত হওয়া নারী ও শিশুরা সমাজে এবং তাদের পরিবারে ফিরে আসুক তা অনেক ধর্মীয় নেতাই চান না। ফলে সমস্যাটি জটিল আকার ধারণ করেছে।

সারাবাংলা/টিসি/পিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন