শনিবার ১৮ জানুয়ারি, ২০২০ ইং

সংরক্ষিত বনে পাহাড় কাটায় চা বাগানের ২ কর্মকর্তা কারাগারে

জানুয়ারি ১৪, ২০২০ | ৮:৩০ অপরাহ্ণ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো: সংরক্ষিত বনাঞ্চলে অনুপ্রবেশ এবং পাহাড় কাটার অভিযোগে দায়ের হওয়া মামলায় চট্টগ্রামের একটি চা বাগানের দুই কর্মকর্তাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

বিজ্ঞাপন

এরা হলেন— ফটিকছড়ি উপজেলার হালদা ভ্যালি চা বাগানের ব্যবস্থাপক মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম এবং সহকারী ব্যবস্থাপক রাজীব আহম্মদ রানা।

মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) দুপুরে চট্টগ্রামের বন আদালতের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জিহান সানজিদা এ আদেশ দেন। এদিন তারা আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেছিলেন।

বিজ্ঞাপন

সূত্র জানায়, চট্টগ্রাম উত্তর বনবিভাগের আওতাধীন ফটিকছড়ি উপজেলার নারায়ণহাট রেঞ্জের বালুখালী বিটের সংরক্ষিত বনাঞ্চলে অবৈধ অনুপ্রবেশ, পাহাড়ের মাটি কাটা ও জবর দখলের অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে মামলায় হয়। বালুখালী বিটের বিট কর্মকর্তা মোহাম্মদ নাঈমুল ইসলাম বাদী হয়ে ভূজপুর থানায় মামলা করেন।

বনবিভাগের নারায়ণহাট রেঞ্জের কর্মকর্তা সুরজিত চৌধুরী বলেন, অভিযুক্ত দু’জনের নেতৃত্বে গত বছরের ২২ জুন ফটিকছড়ির রামগড়-সীতাকুণ্ড সংরক্ষিত বনাঞ্চলে অবৈধ অনুপ্রবেশ করে গাছ কেটে নেওয়া হয়। সেই সঙ্গে পাহাড়ের মাটি কেটে নেওয়া হয়। বনবিভাগের অভিযানের সময় এ কাজে জড়িতরা পালিয়ে যান।

আসামিপক্ষের আইনজীবী মুহাম্মদ আবু তালেব বলেন, ‘যে জমির বিষয়ে অভিযোগ করা হয়েছে, সেটি হালদা ভ্যালি জেলা প্রশাসকের কাছ থেকে লিজ নিয়েছে। কিন্তু বনবিভাগ তাদের জমি দাবি করে মামলা করে। ওই মামলায় দু’জন আত্মসমর্পন করে জামিন চাইলে আদালত নামঞ্জুর করেন।’

সারাবাংলা/আরডি/এটি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন