বিজ্ঞাপন

হাসপাতালে তথ্য সংগ্রহের বিধিনিষেধ তুলে নিল স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়

January 14, 2020 | 8:55 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: তীব্র সমালোচনার মুখে হাসপাতালে সাংবাদিকদের প্রবেশ ও তথ্য সংগ্রহের বিষয়ে দেওয়া নির্দেশনা প্রত্যাহার করেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। নতুন নির্দেশনায় হাসপাতালের তথ্য প্রকাশের ওপর সাংবাদিকদের বিষয়ে দেওয়া নির্দেশনা সংক্রান্ত বিষয় বাদ দিয়ে কেবল দর্শনার্থী ব্যবস্থাপনার নির্দেশনাগুলো বহাল রাখা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মো. আবু রায়হান মিঞার সই করা নতুন নির্দেশনাটি জারি করা হয়। এতে উল্লেখ করা হয়, প্রজ্ঞাপনটি একই স্মারক নম্বর ও তারিখের স্থলাভিষিক্ত হয়েছে বলে।

আরও পড়ুন- হাসপাতালের তথ্য প্রকাশের আগে বস্তুনিষ্ঠতা যাচাইয়ের নির্দেশ

বিজ্ঞাপন

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. মাইদুল ইসলাম প্রধান সারাবাংলাকে বলেন, সাংবাদিকদের তথ্য সংগ্রহের বিষয়ে ১২ জানুয়ারির প্রজ্ঞাপনে যে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছিল, তা বাদ দেওয়া হয়েছে।

এর আগে, গত ৪ জানুয়ারি রাজশাহীতে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছিলেন, কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে কোনো সাংবাদিকরা ঢুকতে পারবেন না।

এরপর ১২ জানুয়ারি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মো. আবু রায়হান মিঞার সই করা এক নির্দেশনা জারি করা হয়।

ওই প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, গবেষণা, জরিপ, অন্য কোনো তথ্য বা সংবাদ সংগ্রহের জন্য তথ্য সংগ্রহকারী হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে অবহিত করবেন। সংগৃহীত তথ্য বা সংবাদের বস্তুনিষ্ঠতার বিষয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে অবহিত করবেন। বিনা অনুমতিতে হাসপাতালের ভেতরে রোগী বা স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রমের কোনো স্থিরচিত্র বা ভিডিওচিত্র ধারণ করতে পারবেন না। সংগৃহীত তথ্য প্রকাশের আগেই বস্তুনিষ্ঠতা বিষয়ে কর্তৃপক্ষের সম্মতি নিতে হবে।

এ নির্দেশনার পরই শুরু হয় তীব্র সমালোচনা। অনেকেই অভিযোগ করেন, হাসপাতালের স্বাস্থ্যসেবার অনিয়ম-দুর্নীতি ঢাকতেই মন্ত্রণালয়ের এমন নিষেধাজ্ঞা। এ ধরনের নির্দেশনা সাংবিধানিক অধিকারকে ক্ষুণ্ন করে।

সারাবাংলা/এসবি/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন