বিজ্ঞাপন

মেয়েকে ধর্ষণে সহায়তাকারী বাবা কারাগারে

January 15, 2020 | 5:01 pm

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: রাজধানীর কামরাঙ্গীরচর এলাকায় বাবার সহায়তায় ১৩ বছর বয়সী কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগের মামলায় গ্রেফতার লিটনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। বুধবার (১৫ জানুয়ারি) বিকালে ঢাকা মেট্টোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মইনুল ইসলাম এ আদেশ দেন।

বিজ্ঞাপন

এদিন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কামরাঙ্গীরচর থানার পুলিশ আসামিকে আদালতে হাজির করে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত এ আদেশ দেন। এসময় আসামি পক্ষের কোনো আইনজীবী ছিল না।

কামরাঙ্গীরচরে বাবার সহায়তায় কিশোরীকে ধর্ষণ, প্রতিবেশীর মামলা

বিজ্ঞাপন

এরআগে গত ১৪ জানুয়ারি দিনগত রাত ২টার সময় কামরাঙ্গীর চরের বেটরিয়া ঘাট এলাকা থেকে লিটনকে গ্রেফতার করে কামরাঙ্গীরচর থানার পুলিশ।

কামরাঙ্গীরচর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. মোর্শেদ আলী জানান, কামরাঙ্গীরচর বেটারিঘাট এলাকায় থাকে কিশোরীর পরিবার। তার মা বিদেশে থাকে। তার বাবা একটি মুরগীর দোকানে কাজ করে। দোকানের মালিক আবুল (৩৫) কিশোরীর বাবার কাছে ছয় হাজার টাকা পায়। সেই টাকা দিতে না পারায় তার মেয়ের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করতে চায় ওই মালিক। দীর্ঘদিন চেষ্টার পর কয়েকদিন আগে বাবার সহায়তায় কিশোরীকে ধর্ষণ করে সে।

বিজ্ঞাপন

এসআই আরও জানায়, ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরী মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পাশের বাসার এক মহিলার কাছে সব ঘটনা খুলে বলে। এরপর ওই মহিলা ৯৯৯-এ ফোন দেয়। ফোন পেয়ে ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়। আর ধর্ষণে সহায়তা করার জন্য তার বাবাকেও আটক করা হয়। প্রতিবেশি ওই মহিলা বাদী হয়ে একটি মামলা করেছেন।

সারাবাংলা/এআই/এমআই

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন