বিজ্ঞাপন

তের পেরিয়ে চৌদ্দতে নকশীকাঁথা

January 22, 2020 | 10:30 am

এন্টারটেইনমেন্ট করেসপন্ডেন্ট

তের বছর পেরিয়ে চৌদ্দতে পা রাখছে বাংলাদেশের লোকগানের জনপ্রিয় ব্যান্ড দল নকশীকাঁথা। দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের লোকগান বিশ্ব দরবারে এবং বিশ্বের নানান দেশের লোকগান এ দেশের দর্শক- শ্রোতাদের কাছে পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্য নিয়ে ২০০৭ সালের ২৫ জানুয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে আত্মপ্রকাশ করে নকশীকাঁথা। প্রতিষ্ঠার পর থেকে দেশের প্রায় সব অঞ্চলের বহু লোকগান সংগ্রহ করে সেগুলো এ সময়ের উপযোগী করে মঞ্চ ও টেলিভিশনে পরিবেশন করে আসছেন এই ব্যান্ডের সদস্যরা।

বিজ্ঞাপন

তের পেরিয়ে চৌদ্দতে নকশীকাঁথা

২০১৮ সালের নভেম্বর মাসে রাজধানীর আর্মি স্টেডিয়ামে ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ফোক ফেস্টে গান পরিবেশন করে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করে নকশীকাঁথা। এই ব্যান্ডের দল প্রধান ও ভোকাল সাজেদ ফাতেমী দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের লোকগান নিয়ে গত প্রায় ১৫ বছর থেকে গবেষণা করছেন।

তের পেরিয়ে চৌদ্দতে নকশীকাঁথা

বিজ্ঞাপন

তাদের প্রথম অ্যালবাম ‘নজর রাখিস’ প্রকাশিত হয় ২০০৮ সালে। ওই অ্যালবামের ‘ভোরের শিশির’, ‘হাটের গোলমাল’, ‘নজর রাখিস’, ‘ভালোবাসার গান’ ও একশ বছর শিরোনামে গানগুলো এবং ২০১৬ সালে প্রকাশিত দ্বিতীয় অ্যালবাম ‘নকশীকাঁথার গান’র ‘নয়া বাড়ি’, ‘চোর’, ‘সাত আসমান’, ‘তুকে লিয়ে’ শিরোনামে গানগুলো বেশ জনপ্রিয়তা পায়। এরপর আরও অন্তত ২০টি নতুন গান কম্পোজিশন করেছে নকশীকাঁথা। রোহিঙ্গা সংকট, সীমান্ত উত্তেজনা, ফেলানী হত্যা, সড়ক দুর্ঘটনাসহ বেশকিছু সংকট নিয়েও গান তৈরি করেছেন তারা।

নকশীকাঁথা ব্যান্ডের সদস্যরা হচ্ছেন- সাজেদ ফাতেমী (দল প্রধান ও ভোকাল), জে আর সুমন (অ্যাকুইস্টিক গিটার, রাবাব ও দোতারা), বুলবুল সাহা (কাহন ও পারকেশন্স), রোমেল হাসান (মেলোডিকা ও অ্যাকোর্ডিয়ান) ও শামস (বেইজ গিটার)।

সারাবাংলা/এএসজি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন