বিজ্ঞাপন

ভাইরাসে মৃত্যু ২৬ জনের, চারদিনে ১০০০ শয্যার হাসপাতাল করছে চীন

January 24, 2020 | 10:16 am

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

চীনের ওবান প্রদেশ দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে নতুন ধরণের করোনা ভাইরাস। এ ভাইরাসে এ পর্যন্ত ২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির সরকারি কর্তৃপক্ষ। ভাইরাসটি যাতে পুরো চীনে বা দেশের বাইরে না ছড়ায় এ লক্ষ্যে ইতিমধ্যে ওবান প্রদেশের শহর থেকে বাইরে যাতায়াত বন্ধ করে দিয়েছে সরকার।

বিজ্ঞাপন

এদিকে আক্রান্তদের চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে ওবান শহরে ১ হাজার শয্যার একটি হাসপাতাল নির্মাণ করছে চীন। ওই হাসপাতালটি তৈরি করতে ইতিমধ্যে নির্মাণসামগ্রী প্রস্তুত করা হয়েছে। এ সপ্তাহের প্রথম দিকেই হাসপাতালটির নির্মাণ শেষ হবে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

চীনের স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়, বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) রাতে নির্মাণ এলাকায় ৩৫টি খননযন্ত্র ও ১০টি বল্ডোজার নিয়ে আসা হয়েছে । আগামী সোমবার নাগাদ এ হাসপাতালটি পুরোদমে চালু করার লক্ষ্য নিয়ে কাজ শুরু হবে। এ হাসপাতালে ১ হাজারটি শয্যা থাকবে।

নতুন এ হাসপাতালটি মূলত স্থানীয় শ্রমিকদের জন্য নির্মাণ করা হচ্ছে। চীনের সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, প্রিফেব্রিকেটেড সামগ্রী দিয়ে হাসপাতালটি নির্মাণ করা হবে। প্রিফেব্রিকেটেড সামগ্রী আগে থেকে তৈরি করে রাখা নির্মাণসামগ্রী, যা একটির সঙ্গে আরেকটি জোড়া লাগিয়ে কম সময়ে বহুতল ভবন তৈরি করা যায়।

বিজ্ঞাপন

এদিকে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে শুক্রবার পর্যন্ত ২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং আরও ৮০০ জনেরও বেশি আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানিয়েছে চীন। চীনের বাইরে থাইল্যান্ড, যুক্তরাষ্ট্রসহ কিছু দেশে এ ভাইরাস আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। তবে এসব আক্রান্তরা চীন থেকে দেশগুলোতে ভ্রমণ করেছিলেন বলে জানা যায়। চীন থেকে যাত্রীরা যাতে নিজের দেহে এই ভাইরাসটি বহন করে দেশে ঢুকতে না পারেন সে লক্ষ্যে ইতিমধ্যে যুক্তরাষ্ট্র, সিঙ্গাপুর, ভারত, জাপানসহ বেশ কয়েকটি দেশের বিমানবন্দরে বিশেষ স্বাস্থ্য পরীক্ষা- থার্মাল টেস্ট চালু করা হয়েছে।

তবে এ পরিস্থিতিকে জরুরী অবস্থা উল্লেখ করলেও এখন পর্যন্ত আন্তর্জাতিক মহামারির আকার ধারণ করেনি বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। চীনের বাইরে এখন পর্যন্ত এ নতুন ভাইরাসে ১৩ জন আক্রান্ত শনাক্ত করা হয়েছে।

সারাবাংলা/আইই

বিজ্ঞাপন

Tags: ,

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন