শনিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৬ ফাল্গুন ১৪২৬, ৪ রজব ১৪৪১

বিজ্ঞাপন

চলন্তিকা বস্তিতে ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনের চেষ্টা করব: আতিকুল

জানুয়ারি ২৪, ২০২০ | ৮:২৭ অপরাহ্ণ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ‘বস্তিবাসীদের পুনর্বাসনের জন্য আমি সর্বোচ্চ চেষ্টা করব, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলাপ করে এই সমস্যার স্থায়ী সমাধানের চেষ্টা করব। ব্যক্তিগতভাবে আমার পক্ষ থেকে বস্তিবাসীর জন্য যা যা করা যায়, তার সবই আমি করব। আমি আপনাদের পাশে আছি।’

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার (২৪ জানুয়ারি) রাজধানীর মিরপুরের চলন্তিকা বস্তিতে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের উদ্দেশ্যে এসব কথা বলেছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) নির্বাচনে মেয়রপ্রার্থী আতিকুল ইসলাম।

তিনি আরও বলেন, এমন ঘটনা সত্যিই হৃদয়বিদারক। আমি এই মানুষগুলোর পাশে আছি। অতীতেও ছিলাম, ভবিষ্যতেও থাকব। গত বছরের ১৬ আগস্ট এখানে একটি দুর্ঘটনা ঘটেছিল। গতরাতে আবার একটি ঘটনা ঘটল। অত্যন্ত দুঃখ ভারাক্রান্ত মন নিয়ে বলতে চাই এ ধরনের ঘটনা খুবই দুঃখজনক। টোটকা চিকিৎসার মতো অস্থায়ী কিছুতে এমন ঘটনার সমাধান হবে না, প্রয়োজন স্থায়ী সমাধান। আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে এসব সমস্যা সমাধানের জন্য আলোচনা করব।

বিজ্ঞাপন

আতিকুল বলেন, এই এলাকায় যারা থাকেন তারাও মানুষ। প্রান্তিক গোষ্ঠীর ও খেটে খাওয়া মানুষদের নিয়ে সবসময়েই ভাবেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। এছাড়াও এমন সময়ে তাদের পাশে এলাকার সংসদ সদস্য, আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ-সংগঠনের সকলেই থাকবেন।

তিনি বলেন, বস্তিবাসীদের পুনর্বাসনের জন্য আমি সর্বোচ্চ চেষ্টা করব, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলাপ করে এই সমস্যার স্থায়ী সমাধানের চেষ্টা করব। ব্যক্তিগতভাবে আমার পক্ষ থেকে বস্তিবাসীর জন্য যা যা করা যায় তার সবই আমি করব।

এ সময় আতিকুল ইসলামের সঙ্গে ছিলেন ঢাকা মহানগর (উত্তর) আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক এস এম মান্নান কচিসহ এলাকার স্থানীয় নেতারা।

উল্লেখ্য, শুক্রবার (২৪ জানুয়ারি) ভোর সোয়া ৪টার দিকে আগুন লাগে চলন্তিকা বস্তিতে। ফায়ার সার্ভিসের ১৫টি ইউনিটের দেড় ঘণ্টার প্রচেষ্টায় সে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে ভোর পৌনে ৬টার দিকে।

সারাবাংলা/এসবি/ এনএইচ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন