সোমবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৪ ফাল্গুন ১৪২৬, ২২ জমাদিউস-সানি ১৪৪১

বড়লেখায় দায়ের কোপে আহত কানন বালার মৃত্যু

জানুয়ারি ২৮, ২০২০ | ৮:১৩ পূর্বাহ্ণ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট

মৌলভীবাজার: মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার পাল্লাথল চা বাগানে প্রতিবেশীর দায়ের কোপে গুরুতর আহত হওয়া কানন বালা (৩৪) অবশেষে মারা গেছেন। সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন।

বিজ্ঞাপন

সোমবার দুপুরে বড়লেখার উত্তর শাহবাজপুর তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ পরিদর্শক মোশাররফ হোসেন এবং পাল্লাথল চা বাগানের হেড ফ্যাক্টরি ক্লার্ক অঞ্জন দাস কানন বালার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মর্মান্তিক এ ঘটনায় হিংস্র নির্মলের কবল থেকে সেদিন ক্ষত-বিক্ষত হয়ে প্রাণে বেঁচে গেলেও গুরুতর আহত অবস্থায় গত ৭ দিন ধরে ওসমানী হাসপাতালের ফ্লোরেই চিকিৎসাধীন ছিলেন স্বামী সন্তান এবং ননদ হারানো গুরুতর আহত কানন বালা।

বিজ্ঞাপন

বড়লেখা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি)ইয়াসিনুল হক সারাবাংলাকে কানন বালার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, দুই পরিবারেরই তিনজন করে ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত রোববার ভোরে বড়লেখা উপজেলার সীমান্তবর্তী পাল্লাথল চা বাগানে পারিবারিক কলহের জের ধরে অস্থায়ী চা শ্রমিক নির্মল কর্মকারের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে তার স্ত্রী জলি বোনার্জি (২৮), জলির মা লক্ষী বোনার্জি (৫০), ভাই বসন্ত ভৌমিক (৩৮) ও তার মেয়ে শিউলী ভৌমিক (১২) খুন হন। পরে নির্মল কর্মকার আত্মহত্যা করেন।

সারাবাংলা/একে

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন