বিজ্ঞাপন

সাংবাদিক সুমনের ওপর হামলা: ইসমাইল রিমান্ডে

February 6, 2020 | 5:04 pm

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ঢাকার সিটি নির্বাচনের দিন সংবাদ সংগ্রহের সময় হামলার শিকার সাংবাদিক মোস্তাফিজুর রহমান সুমনের ওপর হামলার মামলায় গ্রেফতার ইসমাইল হোসেনের একদিনের রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর করেন আদালত।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) বিকেলে শুনানি শেষে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাদবীর ইয়াছির আহসান চৌধুরীর আদালত এ আদেশ দেন।

এ সময় মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদপুর থানার এসআই আলতাফ হোসেন আসামিকে আদালতে হাজির করে পাঁচদিনের রিমান্ড আবেদন করেন।

বিজ্ঞাপন

আবেদনে বলা হয়, চলতি মাসের ১ তারিখে ঢাকা সিটি করপোরেশনের নির্বাচনের ঢাকা উত্তরের কয়েকটি নির্বাচনী কেন্দ্রের সংবাদ সংগ্রহ করার সময় সকাল ১১টার দিকে সাংবাদিক সুমন খবর পান, ৩৪ নং ওয়ার্ড রায়ের বাজারস্থ জাফরাবাদ সাদেক খান রোড এলাকায় সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী শেখ মোহাম্মদ হোসেন খোকনের (টিফিন ক্যারিয়ার মার্কা) অনুসারীরা সহিংসতা চালাচ্ছে। পরে তিনি সেখানে যান।

আবেদনে আরও বলা হয়, দুপুর ১২টার সময় ভিকটিম সেখানে পৌঁছান। শেখ মোহাম্মদ হোসেন খোকনের অনুসারীরা একটি বড় সশস্ত্র মিছিল নিয়ে জাফরাবাদের দিকে যাওয়ার সময় ভিকটিম তার পেশাগত দায়িত্ব পালনে তা মোবাইলে ভিডিও ধারণ করে। যা কয়েকটি ভিডিও ভিকটিমের কাছে সংরক্ষিত আছে। ভিডিও ধারণের সময় মিছিল থেকে ১২/১৫ জন সন্ত্রাসী ক্যাডার ভিকটিমের ওপর চড়াও হন এবং তাকে গালিগালাজ করেন। তার হাতে থাকা মোবাইল ফোন ও ক্যামেরা ছিনিয়ে নিতে উদ্যত হন। আসামিরা সুমনকে হত্যার উদ্দেশে এলোপাথারি কিল ঘুষি ও হকিস্টিক লাঠি দিয়ে মারে এবং ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে।

বিজ্ঞাপন

উল্লেখ্য, শনিবার (১ ফেব্রুয়ারি) ঢাকা সিটি নির্বাচনে ভোটগ্রহণের সময় পেশাগত দায়িত্ব পালনে থাকা সাংবাদিক সুমনকে মারধর ও দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করা হয়।

সুমনকে অন্য সাংবাদিকরা উদ্ধার করে প্রথমে শিকদার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। পরে সেখান থেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। তার মাথায় ছয়টি সেলাই দেওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

ওই ঘটনায় গত ৩ ফেব্রুয়ারি সুমন বাদী হয়ে মোহাম্মদপুর থানায় মামলা দায়ের করেন।

সারাবাংলা/এআই/একে

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন