বিজ্ঞাপন

বাবর-শানের শতকে পিন্ডি টেস্টের নিয়ন্ত্রণে পাকিস্তান

February 8, 2020 | 6:32 pm

স্পোর্টস ডেস্ক

দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টে বাংলাদেশের প্রথম ইনিংসে করা ২৩৩ রানের জবাবে দ্বিতীয় দিনে ৩ উইকেট হারিয়ে ৩৪২ রান তোলে স্বাগতিক পাকিস্তান। ওপেনার শান মাসুদ এবং বাবর আজমের শতকে দ্বিতীয় দিন শেষ করে পাকিস্তান। আর তাতেই প্রথম ইনিংসে সফরকারী বাংলাদেশের থেকে ১০৯ রানে এগিয়ে আছে আজাহার আলীর দল এবং হাতে আছে আরও ৭ উইকেট।

বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশের ১ম ইনিংসের জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই পাকিস্তানের ব্যাটিং লাইন আপে আঘাত হানেন আবু জায়েদ রাহি। নিজের প্রথম ওভারের দ্বিতীয় বলে আবিদ আলিকে লিটন দাসের গ্লাভস বন্দী করে খালি হাতেই সাজঘরে ফেরান এই পেসার।

এরপর দলপতি আজহার আলিকে নিয়ে বিপর্যয় সামাল দেন শান মাসুদ। দলকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তুলে নেন ক্যারিয়ারের ৭ম অর্ধশতক। দু'জনে মিলে গড়েন ৯১ রানের জুটি।

বিজ্ঞাপন

দলীয় ৯৩ রানের সময় পাকিস্তান ব্যাটিং লাইন আপে ফের আঘাত হানেন রাহি। আজহার আলিকে ৩৪ রানে নাজমুল হোসেনের তালুবন্দি করে মাঠ ছাড়া করেন এই পেসার।

কিন্তু বাবর আজমকে নিয়ে ঠিকই লড়াই চালিয়ে যান ওপেনার শান মাসুদ। তৃতীয় উইকেট জুটিতে গড়েন ১১২ রানের। শতক তুলে নেন শান মাসুদ। আর তারপরই তাইজুল ইসলামের বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফিরতে হয় শান মাসুদকে। আউট হওয়ার আগে নামের পাশে ঠিক ১০০ রান যোগ করতে পারেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

শান মাসুদ ফিরলে উইকেটে আসেন আসাদ শফিক, এবার তাকে নিয়েই জুটি গড়েন পাকিস্তানের ব্যাটিং স্তম্ভ। ৬৮তম ওভারের প্রথম বলে তাইজুলকে চার মেরে নিজের শতক পূর্ণ করেন বাবর আজম। এটি বাবরের টেস্ট ক্যারিয়ারের ৫ম শতক। তবে কেবল শতক করেই থামেননি বাবর। সেই সঙ্গে নিজেকে রেখেছেন দেড়শ রানের পথেও। আর আসাদ শফিককে নিয়ে গড়েছেন ইনিংসের সর্বোচ্চ রানের জুটিও।

চতুর্থ উইকেটে ব্যাট করতে আসা আসাদ শফিক অপরাজিত আছেন ৬০ রান। আর বাবরের সঙ্গে জুটি গড়েছেন ১৩৭ রানের। অন্যদিকে দ্বিতীয় দিনে টাইগারদের হয়ে ২টি উইকেট তুলে নিয়েছেন আবু জায়েদ রাহী আর একটি উইকেট নিয়েছেন তাইজুল ইসলাম। রাহী ২০ ওভারে ৬৬ রানের বিনিময়ে তুলে নেন আবিদ আলী (০) এবং পাকিস্তানের অধিনায়ক আজাহার আলীর (৩৪) উইকেট। আর শতক হাঁকানো শান মাসুদকে (১০০) ফেরানো তাইজুল ইসলাম ৩৪ ওভারে ১১১ রান দিয়ে এই একটি উইকেটই ঝুলিতে তুলতে পেরেছেন।

বিজ্ঞাপন

এর আগে টেস্টের প্রথম দিনে (৭ ফেব্রুয়ারি) টপ অর্ডারের ব্যর্থতায় প্রথম ইনিংসে ২৩৩ রানে অল আউট হয় বাংলাদেশ। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৬৩ রানের ইনিংস খেলেন মোহাম্মদ মিঠুন। এটিই বাংলাদেশের ইনিংসে এক মাত্র অর্ধশতকের ইনিংস।  অপরদিকে স্বাগতিকদের হয়ে ৫৩ রানে ৪ উইকেট নেন শাহিন শাহ আফ্রিদি।

আরও পড়ুন: আড়াইশও করতে পারলো না টাইগারেরা

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এনএ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন