বিজ্ঞাপন

‘কাশ্মীরকে মুক্ত না করা পর্যন্ত ভারতের সাথে কোনও ক্রিকেট নেই’

February 9, 2020 | 10:57 am

স্পোর্টস ডেস্ক

চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত-পাকিস্তান যখন ২২ গজের লড়াইয়ে নামে তখন সেই বিষয়টি হয় ক্রিকেটপ্রেমীদের জন্য বেশ উপভোগ্য বিষয়। ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ দেখতে বসার আগে একজন ক্রিকেটমোদি আগে থেকে প্রস্তুতি নিয়ে রাখেন নিজের স্নায়ুকে সংযত রাখার। কেননা যেকোনো মুহূর্তে এদের ম্যাচ স্নায়ুর ওপর প্রচন্ড চাপ ফেলতে সক্ষম।

বিজ্ঞাপন

চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী এই দুই দল পারস্পরিক সিরিজে খুব একটা মুখোমুখি হয় না। তাদের পরস্পরের দেখা মেলে আইসিসির টুর্নামেন্ট গুলোতেই। দুই দেশের রাজনৈতিক সম্পর্ক এর প্রধান অন্তরায়।

এইতো কিছুদিন আগেই ভারত থেকে ঘোষণা এসেছিল আসন্ন এশিয়া কাপ পাকিস্তানে অনুষ্ঠিত হওয়ার কারণে ভারত সেখানে অংশ নেবে না। এর প্রেক্ষিতে গুঞ্জন উঠেছিল ভারত এশিয়া কাপে অংশ না নিলে পাকিস্তানও ভারতে অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অংশ নেবে না। যদিও বিষয়টি উড়িয়ে দিয়েছিলেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের কর্তারা।

বিজ্ঞাপন

ক্রিকেটপ্রেমীদের আগ্রহের জন্য ভারতের ক্রিকেট বোর্ডের প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলি দ্বিপাক্ষিক সিরিজের বিষয়ে গণমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন, ভারত-পাকিস্তান সিরিজের জন্য দুই দেশের প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি প্রয়োজন।

‘কাশ্মীরকে মুক্ত না করা পর্যন্ত ভারতের সাথে কোনও ক্রিকেট নেই’

বিজ্ঞাপন

বিশ্বজুড়ে ক্রিকেট অনুরাগীরা যখন ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যকার দ্বিপক্ষীয় সিরিজের জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন, সেসময় পাকিস্তান থেকে এল এক ভয়াবহ সিদ্ধান্ত। অদূর ভবিষ্যতে এমন কোনও ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও সম্প্রচার বিষয়ক বিশেষ সহকারী ডাঃ ফিরদৌস আশিক আওয়ান।

শনিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ-পাকিস্তানের মধ্যকার প্রথম টেস্ট ম্যাচের দ্বিতীয় দিনে গণমাধ্যমের সাথে আলাপকালে তিনি এই কথা জানিয়েছেন। তিনি বলেন, 'পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের মানুষকে মুক্তি না দেওয়া পর্যন্ত ভারত-পাকিস্তান দ্বিপাক্ষিক সিরিজ অনুষ্ঠিত হবার কোনো সম্ভাবনা নেই।'

বিজ্ঞাপন

ভারত ও পাকিস্তান সর্বশেষ ২০১২ সালে দ্বিপাক্ষিক সিরিজে খেলেছিল, যখন ভারত দুটি টি-টোয়েন্টি ও তিনটি ওয়ানডে সিরিজের জন্য পাকিস্তানকে স্বাগত জানায়। যদিও দুটি দেশ আইসিসি ইভেন্টে একে অপরের বিরুদ্ধে খেলছে।

সারাবাংলা/এনএ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন