সোমবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১১ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৯ জমাদিউস-সানি ১৪৪১

বিজ্ঞাপন

ডেটিংয়ের টাকা নেই, তাই প্রেমিকাকে সঙ্গে নিয়ে ব্যাংক ডাকাতি!

ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০২০ | ৫:১৭ অপরাহ্ণ

বিচিত্রা ডেস্ক

১৪ ফেব্রুয়ারি, ভালোবাসা দিবস আজ। প্রণয়ের কত কাহিনী ভেসে বেড়াচ্ছে ফেসবুক টাইমলাইনে। তবে ম্যাসাচুসেটসে ঘটে যাওয়া এমন অদ্ভুত ডেটিংয়ের গল্প খুব কম লোকেই শুনেছেন। প্রেমিকের সঙ্গে প্রথম ডেট করতে গিয়ে এক তরুণী জড়িয়ে গেলেন ব্যাংক ডাকাতির অভিযোগে। ২০১৬ সালের ৫ ডিসেম্বর ঘটেছে এই ঘটনা। যা এখন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। খবর সিএনএনের।

বিজ্ঞাপন

ক্রিস্টোফার কেসটিলো (৩৩) এর সঙ্গে এক অনলাইন ডেটিং অ্যাপে পরিচয় ঘটে সেলবাই স্যাম্পসন (৪০) এর। ডেটিংয়ের দিনে তারা রোহেড আইল্যান্ড থেকে নর্থ অ্যাটেলবরোতে যাচ্ছিলেন। কেসটিলো মাতাল থাকায় গাড়ি চালাচ্ছিলেন সেলবাই স্যাম্পসন। পথিমধ্যে ব্রিস্ট কাউন্টি সেভিংস ব্যাংকের সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় কেসটিলো থামতে বলেন স্যাম্পসনকে, কয়েক মিনিটের জন্য।

বিজ্ঞাপন

এরপর ক্রিস্টোফার কেসটিলো যে কাণ্ড করলেন তার জন্য মোটেই প্রস্তুত ছিলেন না সেলবাই স্যাম্পসন। কিছু সময় পর ব্যাংক থেকে বেরিয়ে আসার সময় কেসটিলোর চোখে ছিল সানগ্লাস, হাতে বন্দুক ও নগদ টাকা। তিনি ঘামছিলেন আর বলতে থাকেন, তাড়াতাড়ি পালাও, তাড়াতাড়ি পালাও। স্যাম্পসন কিছু বুঝে উঠতে না পেরে দ্রুত গাড়ি চালিয়ে পালিয়ে যেতে থাকেন। তবে পুলিশের গাড়ি দেখতে পেয়ে গাড়ি থেকে লাফ দিয়ে নেমে যান তিনি।

পরে পুলিশ গাড়িটি আটক করে। গ্রেফতার করা হয় ক্রিস্টোফার কেসটিলো ও সেলবাই স্যাম্পসনকে। কেসটিলো পুলিশের কাছে স্বীকার করেন, তার টাকার প্রয়োজন ছিল। তাই তিনি বন্দুকের মুখে এক হাজার ডলার ব্যাংক থেকে ছিনিয়ে নিয়ে পালাতে চেয়েছেন।

এই অপরাধে কেসটিলোকে তিন বছর জেল দেওয়া হয়। যদিও বিনা সাজাতে মুক্তি পেয়েছেন ঘটনাচক্রে ফেঁসে যাওয়া সেলবাই স্যাম্পসন। এটি তার জীবনে সবচেয়ে বাজে ডেট হিসেবেই মনে রেখেছেন তিনি।

সারাবাংলা/এনএইচ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন