বিজ্ঞাপন

যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত বটগাছের গল্প (ভিডিও)

ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০২০ | ৬:৩৫ অপরাহ্ণ

বিচিত্রা ডেস্ক

অপরাধের কারণে মানুষ, এমনকি কখনো কখনো ভয়ংকর প্রাণীকেও শাস্তি দেওয়ার নজির রয়েছে। তবে পাকিস্তানে যাবজ্জীবন দণ্ড দেওয়া হয়েছে এক বটগাছকে। লাদনি কোটাল ক্যান্টনমেন্টে ১২২ বছর ধরে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখা হয়েছে এটিকে। এক মাতাল ব্রিটিশ আর্মি অফিসারের খামখেয়ালি সিদ্ধান্তের কারণে ঘটেছে এমন অদ্ভুত ঘটনা। খবর ইন্ডিয়া টুডের।

বিজ্ঞাপন

১৮৯৮ সালে অবিভক্ত ভারত উপমহাদেশে দায়িত্বরত ছিলেন জেমস স্কুইড। মাতাল অবস্থায় এই আর্মি অফিসার একদিন বাড়ি ফিরছিলেন। তার কেন যেন মনে হলো বটগাছটি তার দিকে আসছে। তিনি বারবার বারণ করলেন বটগাছটি যেন অগ্রসর না হয়। কিন্তু তার মনে হলে গাছটি তার কথা শুনছে না। সঙ্গে সঙ্গে তিনি গাছটিকে গ্রেফতারের নির্দেশ দিলেন। এরপর গাছটিকে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখা হয়।

বিজ্ঞাপন

তবে এরপর যে গাছটিকে মুক্ত করার চেষ্টা করা হয়নি তা নয়। আর্মি কোর্টেও গড়িয়েছে বিষয়টি। কিন্তু স্থানীয়রাই বাধ সাধে গাছটির মুক্তিতে। তাই এক আর্মি অফিসারকে টর্চার করার জন্য যাবজ্জীবন দণ্ড প্রায় বটগাছটি।

‘আমি গ্রেফতার হয়েছি,’ এমন একটি ব্যানারও টানানো আছে গাছটির গায়ে!

সারাবাংলা/এনএইচ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন