বিজ্ঞাপন

মুমিনুল লাজুক! তামিম, মুশফিকদের এগিয়ে আসতে হবে-পাপন

February 19, 2020 | 7:18 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

আগামি শনিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্ট ম্যাচ মাঠে গড়াচ্ছে। আর এই ম্যাচ দিয়ে আবারো জাতীয় দলে ফিরছেন মুশফিকুর রহিম। আর পাকিস্তান সিরিজের ন্যয় জিম্বাবুয়ে সিরিজেও বাংলাদেশ দলের অধিনায়কত্বের ভার থাকছে মুমিনুল হকের কাঁধেই। টেস্ট ম্যাচকে সামনে রেখেছে বুধবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপন। বিসিবি বস বাংলাদেশ দলের বর্তমান পারফরম্যান্স নিয়ে হতাশ আর সেই সঙ্গে তামিম, মুশফিক আর মুমিনুল হকদের মতো সিনিয়র ক্রিকেটারদের আরো বেশি দায়িত্ব নিয়ে খেলার পরামর্শ দিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের খারাপ সময় শুরু হয়েছে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ থেকেই। আর বিশ্বকাপের পর টানা সবক'টি সিরিজেই এমন দৈন্য পারফরম্যান্সই ধরে রেখেছে বাংলাদেশ দল। যার মধ্যে টেস্টে আরো নাস্তনাবুদ অবস্থা বাংলাদেশ দলের। ঘরের মাঠে আফগানিস্তানের কাছে টেস্টে হার, এরপর ভারতের বিপক্ষে ইনিংস ব্যবধানে বড় হার আর সর্বশেষ পাকিস্তান সফরেও ইনিংসসহ হেরেছে বাংলাদেশ দল।

আর এই সকল ম্যাচেই দায়িত্ব নিয়ে খেলতে ব্যর্থ হয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা এমনটাই বললেন বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান পাপন। তাই তো বাংলাদেশ জাতীয় দলের তিন সিনিয়র ক্রিকেটার তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম এবং মুমিনুল হকের সঙ্গে জরুরী বৈঠক করেন তিনি। বৈঠকের পর গণমাধ্যমকে পাপন বলেন, 'তামিম, মুশফিক এবং মুমিনুল এই তিনজনের সঙ্গে আমি কথা বলেছেই। ওদের বললাম বিশ্বকাপ পর্যন্ত যা খেলেছ, সেই পারফরম্যান্সে আমি সন্তুষ্ট। তবে হ্যা আরেকটা ম্যাচ জিততে পারলে অন্যরকম হতো। এরপর থেকে যে'কটা ম্যাচ হয়েছে, সেটা কোনোভাবেই আমরা চার বছর ধরে যে বাংলাদেশকে দেখে এসেছি তার সঙ্গে মেলে না। এটা নিয়েই ওদের সঙ্গে আলাপ করছি। সব দলেরই ভাল-খারাপ সময় যায়। এখন আমাদের যে দল আছে, এই দল দেশের বাইরে অন্য যেকোনো দলের বিপক্ষেই তাদের হারাতে পারে।'

বিজ্ঞাপন

এখানেই থেমে যাননি বিসিবি বস। সেই সঙ্গে বর্তমানের জিম্বাবুয়ে সিরিজ নিয়েও আলোচনা করেছেন পাপন। তিনি বলেন, 'আমাদের এখন জিম্বাবুয়ে সিরিজ আছে। কদিন থেকে মিডিয়ায় যা দেখছি তাতে এমন ভাব মনে হচ্ছে জিম্বাবুয়ের সঙ্গে জিতে আবার জানি কি হয়ে যাবে। আরে জিতি আগে। ভাবটা মনে হচ্ছে জিতেই গেছি। যে খেলা দেখে আসছি তাতে করে জিতে গেছি বলে আমার মনের মধ্যে এমন কোনো আশা আমি দেখতে পাচ্ছি না। তোমরা যদি হালকা করে নাও তাহলে ডিজাস্টার হবে। কারণ জিম্বাবুয়ে জিম্বাবুয়ের জায়গায় আছে, আমরা আমাদের জায়গায় নেই। বিশেষ করে টেস্টে তারা ভাল পারফর্ম করছে।'

দেশের মাটিতে আফগানিস্তানের সঙ্গে হারটাই সবথেকে খারাপ ফলাফল এমনটা জানিয়েছেন পাপন নিজেই। আর এই কারণেই সিনিয়রদের আরো দায়িত্ব নিয়ে খেলার পরামর্শ দিয়েছেন বিসিবি বস। তিনি বলেন, 'আমাকে যদি কেউ জিজ্ঞাসা করে যে সব থেকে খারাপ ফলাফল কোনটা। তাহলে বলব-দেশের মাটিতে আফগানিস্তানের সঙ্গের হারটা। আফগানিস্তানের সঙ্গে যদি আমরা হারতে পারি, তাহলে জিম্বাবুয়ের সঙ্গেও হারতে পারি। সব ভুলে গিয়ে সম্পূর্ণ নতুন মাইন্ডসেট নিয়ে খেলতে হবে। সিনিয়রদের দায়িত্ব নিতে হবে, টিম গেম হতে হবে, এটাও বলেছি টি-টোয়েন্টি পাকিস্তানে গিয়ে আমাদের না জেতার কারণ ছিল না। ইন্ডিয়াতে গিয়ে আমরা একটা জিতে বাকি দুইটা হেরেছি, তবু কেউ পারফরম্যান্স খারাপ বলবে না। পাকিস্তানে যে অ্যাপ্রোচ, মাইন্ডসেট নিয়ে খেলেছে তাঁর কোনোটাই ভাল ছিল না। পৃথিবীর যত শক্তিশালী দলই আসুক বাংলাদেশে, এখানে এসে জেতা অসম্ভব কঠিন। আমাদের জেতার সম্ভাবনাই বেশি।'

বাংলাদেশ দল এখনো যথেষ্ট শক্তিশালী বলেই মনে করছেন বিসিবি বস। তিনি আরো বলেন, 'আমরা দেশের বাইরে যেখানে গিয়ে খেলি না কেন সেখানেই জেতার ক্ষমতা আমাদের আছে। আর চার পাঁচটা দেশ আছে যেখানে হারার কোনো কারণ নাই আমাদের। কোনো দেশই আমাদের হালকা ভাবে নেয় না। জিম্বাবুয়ে শক্তি প্রতিপক্ষ। আমি একা কি করলাম ফিফটি করালাম না কি করলাম কিছু যায় আসে না। টিম ওয়ার্ক লাগবে। মুমিনুল তো লাজুক। আমি তামিম, মুশফিক ওদের বলেছি পুরোপুরি তোমাদের যুক্ত হতে হবে।'

মিরপুর শের-ই-বাংলায় আগামি শনিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্ট খেলতে মাঠে নামবে বাংলাদেশ দল।

সারাবাংলা/এমআরএফ/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন