বিজ্ঞাপন

অ্যাসাঞ্জের ভাগ্য ঝুলে আছে যুক্তরাজ্যের আদালতে, সোমবার শুনানি

February 21, 2020 | 6:24 pm

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

বিশ্বব্যাপী রাষ্ট্রীয় কর্তৃপক্ষের দুর্নীতি, অনিয়ম এবং পক্ষপাতিত্বের নথি জনসম্মুখে এনে আলোচনায় আসা ওয়েবসাইট উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক কারাবন্দি জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জের ভাগ্য ঝুলে আছে যুক্তরাজ্যের আদালতে। ১০ বছর আগেকার একটি গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে বিচারের জন্য অ্যাসাঞ্জকে যুক্তরাষ্ট্রে প্রত্যর্পণ করা হবে কি না, সে ব্যাপারে সোমবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) শুনানি অনুষ্ঠিত হবে। খবর রয়টার্স।

বিজ্ঞাপন

এর আগে, যুক্তরাজ্যের ইকুয়েডর দূতাবাসে রাজনৈতিক আশ্রয়ে থাকা অ্যাসাঞ্জকে যৌন হয়রানিসহ কয়েকটি অভিযোগের প্রেক্ষিতে আটক করে পুলিশ। যুক্তরাজ্যের এক কারগারে তাকে আটক রাখা হয়। পরে তাকে ওয়েস্টমিনস্টার ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে হাজির করে বিচারের মুখোমুখি করা হলে তিনি নির্দোষ প্রমাণিত হন।

ইতোমধ্যেই, আইনজীবী, চিকিৎসক ও তার কয়েকজন বন্ধু কারাবন্দি অ্যাসাঞ্জের সঙ্গে দেখা করে তার স্বাস্থ্যগত অবস্থা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের এক আবেদনের প্রেক্ষিতে যুক্তরাজ্য ২৩ ফেব্রুয়ারি শুনানির তারিখ নির্ধারণ করা হয়। প্রত্যর্পণ করা হবে কি না, এ প্রশ্নের সুরাহা করতে সোমবার পর্যন্ত অপেক্ষা করতেই হবে।

বিজ্ঞাপন

এদিকে জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ জানিয়েছেন, তার ফাঁস করা নথির কারণে যুক্তরাষ্ট্রের প্রকৃত চেহারা ফাঁস হয়ে যাওয়ায় রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত হয়ে তার বিরুদ্ধে একের পর এক মিথ্যা অভিযোগ আনা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, গুপ্তচরবৃত্ততির যে অভিযোগে অ্যাসাঞ্জকে যুক্তরাষ্ট্রে নিয়ে গিয়ে বিচারের মুখোমুখি করতে চাওয়া হচ্ছে। সেই অভিযোগে দোষী প্রমাণিত হলে সর্বোচ্চ  ১৭৫ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড হতে পারে তার।

সারাবাংলা/একেএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন