array(4) {
  [0]=>
  string(122) "https://sarabangla.net/wp-content/uploads/2020/02/Park-Road-of-Baridhara-Renamed-on-Combodia-Leader-26-02-2020-1-30x23.jpg"
  [1]=>
  int(30)
  [2]=>
  int(23)
  [3]=>
  bool(true)
}
array(4) {
  [0]=>
  string(122) "https://sarabangla.net/wp-content/uploads/2020/02/Park-Road-of-Baridhara-Renamed-on-Combodia-Leader-26-02-2020-3-30x23.jpg"
  [1]=>
  int(30)
  [2]=>
  int(23)
  [3]=>
  bool(true)
}
বারিধারার পার্ক রোড এখন ‘কিং নরোদম সিহানুক রোড’

বিজ্ঞাপন

বারিধারার পার্ক রোড এখন ‘কিং নরোদম সিহানুক রোড’

February 26, 2020 | 10:53 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: রাজধানীর বারিধারার থাইল্যান্ড দূতাবাস সংলগ্ন ‘পার্ক রোড’-এর নাম পরিবর্তন করে কম্বোডিয়ার স্থপতি প্রয়াত রাজা ‘নরোদম সিহানুক’-এর নামে নামকরণ করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বুধবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এই সড়কের নাম ফলক উন্মোচন করা হয়। স্থানীয় সরকার, পল্লি উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী তাজুল ইসলাম এ সড়কের নামফলক উন্মোচন করেন।

আরও পড়ুন- ঢাকা-নমপেন যৌথ কমিশনের বৈঠক বৃহস্পতিবার

বিজ্ঞাপন

তাজুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশ ও কম্বোডিয়ার মধ্যে নিবিড় সম্পর্ক রয়েছে। সেই হৃদ্যতা দেখানোর জন্য ২০১৭ সালে কম্বোডিয়ার নমপনের একটি সড়ক বঙ্গবন্ধুর নামে নামকরণ করা হয়েছে। কম্বোডিয়া বঙ্গবন্ধুর প্রতি যে ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা দেখিয়েছে, তারই ধারাবাহিকতায় আজ এ সড়কের নাম কম্বোডিয়ার প্রয়াত রাজার নামে করা হলো। এর মাধ্যমে দুই দেশের সম্পর্ক আরও দৃঢ় হবে বলে আমার বিশ্বাস।

মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা যুদ্ধের নেতৃত্ব দিয়ে আমাদের গৌরবজ্জ্বল জাতিতে রূপান্তর করতে সক্ষম হয়েছেন। মানবতার জন্য কাজ করেছেন বঙ্গবন্ধু। সে কারণে সারাবিশ্বেই বঙ্গবন্ধুর ভক্ত আছে। বঙ্গবন্ধুর প্রতি অনেকেরই দুর্বলতা আছে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কম্বোডিয়ার পররাষ্ট্র ও আন্তর্জাতিক সম্পর্ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ইয়াত সোফিয়া বলেন, বাংলাদেশের এই আয়োজনে আমি অত্যন্ত আনন্দিত। বিশেষ করে মুজিববর্ষে কম্বোডিয়ার জাতির পিতার নামে একটি সড়কের নামকরণ অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। দুই দেশের মধ্যে যে হৃদ্যতাপূর্ণ সম্পর্ক বিরাজ করছে, এটি তারই স্মারক চিহ্ন। ভবিষ্যতে দুই দেশের সম্পর্ক আরও শক্তিশালী হবে— এটা আমি বিশ্বাস করি।

অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম, স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ, পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন, বাংলাদেশে নিযুক্ত কম্বোডিয়ার রাষ্ট্রদূত উং সিন, কম্বোডিয়া ও থাইল্যান্ডে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত নাজমুল কাওনাইন, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) প্যানেল মেয়র মো. জামাল মোস্তফা ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আবদুল হাই উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে, ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কম্বোডিয়া সফরে সিদ্ধান্ত হয়, কম্বোডিয়ার রাজধানী নমপেনে একটি সড়ক বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে এবং ঢাকায় একটি সড়ক কম্বোডিয়ার ‘ফাদার প্রিন্স’ রাজা নরোদম সিহানুকের নামে নামকরণ করা হবে। নমপেন সে সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের পর এবার ঢাকাও সেই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করল।

সারাবাংলা/এসবি/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন