বিজ্ঞাপন

বিদ্রোহী কাউন্সিলর প্রার্থীদের নিয়ে ৫ মার্চ বসবেন মোশাররফ

February 28, 2020 | 11:16 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো: চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে কাউন্সিলর পদে প্রার্থীতা বহাল রাখলে সংগঠনের প্রাথমিক সদস্যপদও থাকবে না, এমন হুঁশিয়ারি এসেছে নগর আওয়ামী লীগের এক সভায়। বিদ্রোহীদের নিয়ে আগামী ৫ মার্চ নির্বাচন সমন্বয়ক আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বৈঠক করবেন বলে সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) রাতে নগরীর দারুল ফজল মার্কেটের দলীয় কার্যালয়ে নগর আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়।

নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সভায় দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোশাররফ হোসেন, নগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম সুজন, মমেয়র প্রার্থী এম রেজাউল করিম চৌধুরীসহ কয়েকজন নেতা বক্তব্য রাখেন।

বিজ্ঞাপন

সভায় উপস্থিত নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, মোশাররফ হোসেন দলের সিদ্ধান্ত মেনে যেসব নেতা কাউন্সিলর পদে বিদ্রোহী হিসেবে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন তাদের সেটা প্রত্যাহারের আহ্বান জানান। একইসঙ্গে দলের সমর্থিত প্রার্থীকে সমর্থন ঘোষণার অনুরোধ করেন। অন্যথায় কঠোর সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও হুঁশিয়ার করেন।

মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরুর আগ পর্যন্ত দলীয় প্রার্থীদের সামাজিক অনুষ্ঠানে যাওয়া ও যোগাযোগ বাড়ানোর তাগিদ দেন।

বিজ্ঞাপন

খোরশেদ আলম সুজন কাউন্সিলর প্রার্থীদের সমর্থন প্রক্রিয়ায় নগর আওয়ামী লীগকে যুক্ত না করায় ক্ষোভ জানান। তিনি সভায় বলেন, নগর আওয়ামী লীগ যেহেতু মাঠে কাজ করে সবাইকে আমরা চিনি-জানি। প্রার্থী বাছাইয়ের ক্ষেত্রে নগর আওয়ামী লীগকে যদি যুক্ত করা হত, তাহলে এখন এত সমস্যা হত না। কয়েকজন কাউন্সিলর প্রার্থী নিয়ে যে বিতর্ক উঠেছে সেটাও হত না।

জানতে চাইলে সুজন সারাবাংলাকে বলেন, ‘সভায় বিদ্রোহী প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার নিয়ে আলোচনা হয়েছে। কেউ যদি প্রত্যাহার না করে, তাদের প্রাথমিক সদস্যপদও থাকবে না, এমন আলোচনা হয়েছে। এরপরও যারা সমর্থন পেয়েছেন এবং যারা পাননি কিন্তু মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন, তাদের সঙ্গে মোশাররফ ভাই আলোচনায় বসবেন।'

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়ার শেষদিনে মেয়র পদে ৯ জন, ৪১ ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ২২০ জন এবং ১৪ টি সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৫৮ জন তাদের মনোনয়ন পত্র জমা দেন।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ২৯ মার্চ চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের নির্বাচন হবে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/আরডি/এমআই

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন