বিজ্ঞাপন

প্রতিদ্বন্দ্বীর সভায় হামলা, চসিকের কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে মামলা

February 29, 2020 | 1:53 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো: চট্টগ্রাম নগরীর সরাইপাড়া ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগ সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থীর সভায় হামলার ঘটনায় মামলা দায়ের হয়েছে। এতে ওই ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর ও তার ছেলেসহ ১২ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাতনামা আরও ৫০ জনকে আসামি করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) রাতে হামলার শিকার কাউন্সিলর প্রার্থী মো. নুরুল আমিন বাদি হয়ে নগরীর ডবলমুরিং থানায় মামলাটি দায়ের করেছেন।

ডবলমুরিং থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. জহির হোসেন মামলা দায়েরের বিষয়টি সারাবাংলাকে জানিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

মামলায় প্রধান আসামি করা হয়েছে কাউন্সিলর সাবের আহমেদ সওদাগরের ছেলে মো. ফারুক আহমেদ অপুকে (২৮)। বাকি আসামিরা হলেন- কাউন্সিলর সাবের, জাহিদুল আলম মুরাদ, রনি, জনি, টিংকু, তারেক, সামিউল আলম সবিত, সাইফুল ইসলাম, রবিউল হক টুকু এবং নিজাম উদ্দিন মুন্না।

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সরাইপাড়া ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর সাবের আহমেদ সওদাগর এবার আওয়ামী লীগের সমর্থন পাননি। সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মহিউদ্দিন সোহেল হত্যা মামলার আসামি হয়ে বিতর্কিত হয়ে পড়া সাবেরের বদলে আওয়ামী লীগ এবার সমর্থন দিয়েছে দলটির ওয়ার্ড কমিটির আহ্বায়ক মো. নুরুল আমিনকে। তবে দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে সাবের আহমেদও মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে সরাইপাড়া ওয়ার্ডের ঝর্ণাপাড়া এলাকায় নিজ বাসার নিচে নেতাকর্মীদের সঙ্গে নুরুল আমিনের মতবিনিময় সভায় এই হামলার ঘটনা ঘটে। পুলিশ জানিয়েছিল, হামলায় কমপক্ষে সাতজন আহত হন।

আসামিদের বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ১৪৩, ৪৪৭, ৩২৩, ৩০৭, ৩২৫, ৪২৭, ১০৯ ও ৫০৬ ধারায় অভিযোগ করেছেন বাদি নুরুল আমিন।

বিজ্ঞাপন

মামলার আসামি সাবের আহমেদ সওদাগর সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মহিউদ্দিন সোহেল হত্যা মামলায়ও কারাগারে ছিলেন। ওই মামলার অভিযোগপত্রভুক্ত এক নম্বর আসামি সাবের।

সারাবাংলা/আরডি/একে

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন