বিজ্ঞাপন

তদন্তে ‘রাজনীতি’

February 26, 2018 | 2:57 pm

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি ।।

বিজ্ঞাপন

২০১৭ সালের ২৯ অক্টোবর হবিগঞ্জের আদালতে চিত্রনায়ক শাকিব খানের বিরুদ্ধে ৫০ লাখ টাকার মানহানির মামলা করেন অটোরিক্সা চালক ইজাজুল মিয়া। ‘রাজনীতি’ সিনেমায় ইজাজুল মিয়ার অনুমতি ছাড়াই তার মোবাইল নম্বর ব্যবহার করায় এই মামলা দায়ের করেন তিনি। শাকিব খানের সঙ্গে ‘রাজনীতি’ সিনেমার পরিচালক ও প্রযোজকের নামেও হয় এই মামলা।

নানা কারণে সময় লাগছে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে। নির্ধারিত সময়ে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল না করায় আগামী ৭ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। একইসঙ্গে প্রতিবেদন জমা দিতে সময় লাগার ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে ডিবি পুলিশের ওসির কাছে।

বিজ্ঞাপন

রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) বাদীর আইনজীবীর আবেদনের প্রেক্ষিতে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শম্পা জাহান এই নির্দেশ দেন। বাদী পক্ষের আইনজীবি অ্যাডভোকেট এম এ মজিদ জানান, মামলার প্রতিবেদন দাখিলের সময় একাধিকবার বর্ধিত করা হয়। কিন্তু তদন্তকারী কর্মকর্তা প্রতিবেদন দেননি।

বিজ্ঞাপন
তদন্তে ‘রাজনীতি’

গত ৭ ফেব্রুয়ারি মামলার নির্ধারিত তারিখে শুনানী শেষে ১৫ কার্যদিবসের মাঝে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেয় আদালত। একইসঙ্গে বিলম্ভের কারণ দর্শাতেও বলা হয় তদন্তকারী কর্মকর্তাকে। মামলার প্রথম তদন্তকারী কর্মকর্তা ছিলেন ডিবির এসআই ইকবাল বাহার। পরবর্তিতে ওসি শাহ আলম নেন তদন্তের দায়িত্ব। তিনি জানান, তদন্ত শেষ পর্যায়ে। এক সপ্তাহের মধ্যেই প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।

বিজ্ঞাপন

এর আগে শাকিবভক্তদের মোবাইল ফোনে অতিষ্ট হয়ে ইজাজুল গত বছরের ২৮ অক্টোবর বানিয়াচং থানায় রাজনীতি সিনেমার প্রযোজক আশফাক আহমেদ, পরিচালক বুলবুল বিশ্বাসের বিরুদ্ধে একটি সাধারণ ডায়রি করেন। নায়ক শাকিব খান ‘রাজনীতি’ ছবিতে নায়িকা অপু বিশ্বাসকে যে গ্রামীনফোনের মোবাইল নাম্বারটি দেন সেটি কাকতালীয়ভাবে হবিগঞ্জর বানিয়াচং উপজলার যাত্রাপাশা গ্রামের মোবারক মিয়ার ছেলে ইজাজুল মিয়ার মোবাইল নাম্বারের সঙ্গে মিলে যায়।

সারাবাংলা/পিএ/টিএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

Tags:

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন