বিজ্ঞাপন

শিল্পী কাজলের তৈলচিত্রে মুক্তিযুদ্ধ

মার্চ ২, ২০২০ | ৯:৫৩ অপরাহ্ণ

এন্টারটেইনমেন্ট করেসপন্ডেন্ট

শিল্পকলা একাডেমিতে শুরু হলো শিল্পী কাজলের তৈলচিত্রের ১০ দিনব্যাপী প্রদর্শনী। ‘মুক্তিযুদ্ধ ও নৈসর্গিক বাংলাদেশ’ শিরোনামে এই প্রদর্শনীতে শিল্পী আখতার মাহমুদ কাজলের ১০২টি তৈলচিত্র স্থান পেয়েছে। বাঙালির লড়াই সংগ্রামকে কেন্দ্র করে আঁকা প্রতিকৃতি, তাদের মুখাবয়ব ও অভিব্যক্তি, সেই সঙ্গে প্রকৃতি-অনুপ্রাণিত বিমূর্ত ভাব তার চিত্রকর্মকে এনে দিয়েছে স্বতন্ত্র শৈলী।

বিজ্ঞাপন

সোমবার (২ মার্চ) বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা ভবনের ৬ নম্বর গ্যালারিতে এই প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের প্রধান কৌঁসুলি ও একুশে পদকপ্রাপ্ত ভাষাসৈনিক অ্যাডভোকেট গোলাম আরিফ টিপু। আরও উপস্থিত ছিলেন শিল্পী সমরজিৎ রায় চৌধুরী ও শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী।

বিজ্ঞাপন

নিজের এই প্রদর্শনী সম্পর্কে শিল্পী আখতার মাহমুদ কাজল বলেন, ‘শিল্পকর্মে আমার প্রাতিষ্ঠানিক কোনো শিক্ষা নেই। মুক্তিযুদ্ধের সময় আমি স্কুলে পড়ি। বেড়ে উঠেছি গ্রামেই। বাবার পেশাগত কাজের সুবাদে ঘুরেছি দেশজুড়ে। খুব কাছ থেকে দেখেছি পাক হানাদার বাহিনীর নির্যাতন, যা আমাকে নাড়া দিয়েছে। বাংলার নৈসর্গিক সৌন্দর্যও আমাকে টেনেছে। আমার শিল্পকর্মগুলোতে এসবই তুলে ধরেছি। দীর্ঘ ৪০ বছর তৈলচিত্রে কাজ করলেও কখনও প্রদর্শনী করিনি। একজন স্বশিক্ষিত শিল্পী হিসেবে ব্যক্তিগতভাবে শিল্পচর্চা করেছি। তবে আনুষ্ঠানিক প্রদর্শনী এবারই প্রথম।’

২ মার্চ থেকে ১১ মার্চ পর্যন্ত শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা ভবনের ৬ নম্বর গ্যালারিতে ১০ দিনব্যাপী এই প্রদর্শনী চলবে। প্রতিদিন সকাল ১১টা থেকে রাত ৮টা এবং শুক্রবার বিকেল ৩টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত দর্শকদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

সারাবাংলা/এএসজি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন