array(4) {
  [0]=>
  string(72) "https://sarabangla.net/wp-content/uploads/2020/03/bread-butter-30x23.jpg"
  [1]=>
  int(30)
  [2]=>
  int(23)
  [3]=>
  bool(true)
}
array(4) {
  [0]=>
  string(67) "https://sarabangla.net/wp-content/uploads/2020/03/cereals-30x23.jpg"
  [1]=>
  int(30)
  [2]=>
  int(23)
  [3]=>
  bool(true)
}
array(4) {
  [0]=>
  string(63) "https://sarabangla.net/wp-content/uploads/2020/03/doi-30x23.jpg"
  [1]=>
  int(30)
  [2]=>
  int(23)
  [3]=>
  bool(true)
}
array(4) {
  [0]=>
  string(65) "https://sarabangla.net/wp-content/uploads/2020/03/juice-30x23.jpg"
  [1]=>
  int(30)
  [2]=>
  int(23)
  [3]=>
  bool(true)
}
array(4) {
  [0]=>
  string(72) "https://sarabangla.net/wp-content/uploads/2020/03/bread-butter-30x23.jpg"
  [1]=>
  int(30)
  [2]=>
  int(23)
  [3]=>
  bool(true)
}
array(4) {
  [0]=>
  string(67) "https://sarabangla.net/wp-content/uploads/2020/03/cereals-30x23.jpg"
  [1]=>
  int(30)
  [2]=>
  int(23)
  [3]=>
  bool(true)
}
array(4) {
  [0]=>
  string(63) "https://sarabangla.net/wp-content/uploads/2020/03/doi-30x23.jpg"
  [1]=>
  int(30)
  [2]=>
  int(23)
  [3]=>
  bool(true)
}
array(4) {
  [0]=>
  string(65) "https://sarabangla.net/wp-content/uploads/2020/03/juice-30x23.jpg"
  [1]=>
  int(30)
  [2]=>
  int(23)
  [3]=>
  bool(true)
}

বিজ্ঞাপন

সকালের নাস্তায় কী খাবেন, কী খাবেন না

মার্চ ১১, ২০২০ | ১০:৩০ পূর্বাহ্ণ

লাইফস্টাইল ডেস্ক।।

সকালবেলা অফিসের ব্যস্ততা, টিফিন তৈরি, বাচ্চাকে স্কুলে দেয়া, দিনের টুকিটাকি কাজগুলো গুছিয়ে রেখে কোনমতে অফিসে দৌঁড়ানো। এতকিছু সামলিয়ে নাস্তা করার সময় কই! তাই নাস্তা না করেই কিংবা নামমাত্র কিছু মুখে দিয়ে অফিসে চলে যাওয়া অনেকেরই নিত্যদিনের ঘটনা। আবার ওজন কমাতেও অনেকে সকালের নাস্তা বাদ দেন।

বিজ্ঞাপন

সকালবেলা নাস্তা না করলে শরীরের ওপর অত্যন্ত নেতিবাচক প্রভাব পড়ে। চিকিৎসাবিজ্ঞানীরা বলছেন, সকালবেলা ভরপেট খেতে হবে। দুপুরে কিছুটা কম, আর রাতে আরও কম খাওয়া উচিত। সকালবেলা শুধু ভরপেট নয়, বরং পুষ্টিকর খাবার খেতে হবে।

সকালবেলার সঠিক নাস্তা শরীরে ‘জ্বালানি’ হিসেবে কাজ করে। সারাদিন অনেক কাজ করলেও ক্লান্তি আসে না। কাজে মনোযোগ থাকে। আসুন জেনে নেই, সকালের নাস্তায় কী খাবেন আর কী খাবেন না-

বিজ্ঞাপন

সামান্য ফ্যাট মন্দ নয়

অনেকে মনে করেন সকালের নাস্তায় ফ্যাটজাতীয় খাবার খাওয়া ভালো নয়। পুষ্টিবিদরা বলছেন অন্য কথা। ফ্যাটজাতীয় খাবার সকালেই খাওয়া ভালো। সারাদিন কাজ করার ফলে শক্তি ক্ষয় হয়। মেদ জমে না।

গবেষণায় দেখা গেছে, বাদাম কিংবা পিনাট বাটার সকালের নাস্তায় রাখা ভালো। এতে শরীরে পুষ্টির চাহিদা পূরণ হয় এবং সারাদিন বারবার খাওয়ার প্রবণতা কমে যায়।

কর্নফ্লেক্সের চেয়ে ওটস ভালো

গবেষণা বলছে, ওটসে থাকে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার। এতে চিনি নেই বললেই চলে। তাছাড়া ওটস খেলে অনেকক্ষণ ক্ষুধার অনুভূতিও থাকে না। ফলে যারা ডায়েট করছেন তাদের জন্য ওটস ভালো। আর কর্নফ্লেক্স প্রক্রিয়াজাত খাবার। ফলে এতে পুষ্টির পরিমাণ কম।

টকদই

সকালের নাস্তায় টকদই খাওয়া ভালো। ওজন কমাতে সাহায্য করে টকদই। তাছাড়া সকালবেলা টকদই খেলে শরীরে প্রোটিনের চাহিদা পূরণ হয়। ফলে সারাদিন ক্ষুধাও লাগে কম।

জুস নয়, আস্ত ফল

বাজারে কেনা ফলের রসে ভেজাল আছে- একথা তো নতুন নয়। তাই কেনা জুস না খাওয়াই ভালো। বাসায় ব্লেন্ড করা জুসেও অনেকসময় আঁশ বা ফাইবার নষ্ট হয়। তাই আস্ত ফল খাওয়াই সবচেয়ে ভালো। এতে ফলের সমস্ত পুষ্টিগুণ অটুট থাকে।
সকালের নাস্তায় ফল রাখা উচিত। এতে হজম প্রক্রিয়া ভালো হয়। অনেক ক্যালরি পাওয়া যায়।

কিছু গবেষণায় দেখা গেছে, যারা ওজন নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে সকালের নাস্তা বাদ দেন তাদের ওজন তো কমেই না, উল্টো বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনাই দেখা দেয়। তাই সঠিক প্রক্রিয়ায় ডায়েট করতে হবে।

সারাবাংলা/টিসি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন