বিজ্ঞাপন

ভাঙনের হাত থেকে গণফোরামকে রক্ষার আহ্বান ‘বাদ পড়া’ নেতাদের

March 14, 2020 | 10:56 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: অবিলম্বে গণফোরাম ভাঙনের হাত থেকে রক্ষা করার জন্য দলটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ড. কামাল হোসেনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দলের আহ্বায়ক কমিটি থেকে বাদ পড়া নেতারা। শনিবার (১৪ মার্চ) রাজধানীর মতিঝিলে গণফোরামের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এই আহ্বান জানান।

বিজ্ঞাপন

একই সঙ্গে নেতারা আগামী ২ সপ্তাহের মধ্যে ড. কামাল হোসেনকে এ ব্যাপারে কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়ারও আহ্বান জানান। অন্যথায় সময় ও পরিস্থিতি ওপর নির্ভর করে নেতারা কঠোর সিদ্ধান্ত নেবেন বলেও জানান এই নেতারা।

সংবাদ সম্মেলনে অধ্যাপক আবু সাইয়িদ বলেন, ‘ড. কামাল হোসেনকে সামনে রেখে একটি কুচক্রী মহল দলটির ব্যক্তিস্বার্থ চরিতার্থে অপচেষ্টা চালাচ্ছে। ওই চক্রটির কারণে বারবার অনুরোধ করার পরও গঠনতন্ত্র লঙ্ঘন করে ১০ মাস কেন্দ্রীয় কমিটির সভা আহ্বান করা হয়নি। ফলে দলের মধ্যে বহিষ্কার, পাল্টা-বহিষ্কারের ঘটনা ঘটেছে। এসব বিষয় নিয়ে আজ আমরা গণফোরামের জেলা নেতাদের নিয়ে দলের কেন্দ্রীয় কমিটির বর্ধিত সভা করেছি। সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, এখন থেকে দলীয় ঐক্য রক্ষায় ও সাংগঠনিক কর্মকাণ্ড পরিচালনায় জন্য মুখপাত্র হিসেবে অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী দায়িত্ব পালন করবেন। আজকের সভা দুই সপ্তাহের জন্য মুলতবি করা হয়েছে। দুই সপ্তাহে পরে সভা করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

বিজ্ঞাপন

সংবাদ সম্মেলনে দলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু বলেন, ‘একদিনের নোটিশে আজকের সভায় ১২ জেলার প্রতিনিধি উপস্থিত হয়েছেন। ড. কামাল ও রেজা কিবরিয়ার নেতৃত্বে গণফোরামের আহ্বায়ক কমিটি অগণতান্ত্রিক ভাবে হয়েছে। কারও সঙ্গে আলোচনা না করেই কমিটি ভেঙে দেওয়া হয়েছে। আর যে আহ্বায়ক কমিটি হয়েছে, সেটাও অগণতান্ত্রিক।’ রেজা কিবরিয়া দলের সাংগঠনিক কার্যক্রম গতিশীল করার পরিবর্তে দলে কোন্দল সৃষ্টি করেছেন বলেও অভিযোগ করেন মন্টু।

সারাবাংলা/এএইচএইচ/এমও

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন