বিজ্ঞাপন

করোনায় কাজ বন্ধ, বাড়ি ফিরতে গিয়ে বাসচাপায় মৃত্যু

মার্চ ২৫, ২০২০ | ৯:৩৪ পূর্বাহ্ণ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: করোনাভাইরাসের কারণে কাজ বন্ধ হয়ে গেছে। তাই বোন ও ভাগ্নেকে নিয়ে বাড়ির পথে যাত্রা করেছিলেন। কিন্তু সেই যাত্রা থামিয়ে দিল ঘাতক বাস। রাজধানীর গুলিস্তানে মহানগর নাট্যমঞ্চের পাশে রিকশায় বাসের ধাক্কায় পড়ে গেলে আরোহী মুক্তা আক্তারের (২৪) ওপর দিয়ে উঠে যায় ওই বাহনটিই। এ ঘটনায় মুক্তা মারা যায় আর আহত হয় তার ভাগ্নে সাব্বির (২)।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) সন্ধ্যা সাতটার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। পরে মুমূর্ষু অবস্থায় তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক রাত সাড়ে আটটার দিকে মুক্তাকে মৃত ঘোষণা করে।

নিহত মুক্তার বড়বোন মোছা. সাবিনা আক্তার জানান, তাদের বাড়ি শরীয়তপুর জেলার সখীপুর উপজেলার সরদারকান্দি গ্রামে। মুক্তার স্বামী যুবায়ের হোসেন। তারা দুইবোন মতিঝিল গরম পানির গলিতে থাকতো। মুক্তা বাসাবাড়িতে রান্নার কাজ করতো।

বিজ্ঞাপন

সাবিনা আরও জানান, করোনাভাইরাসের কারণে কাজ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তারা দুবোন ও ছেলে সাব্বিরকে নিয়ে গ্রামের বাড়ি যাচ্ছিল। সদরঘাট যাওয়ার সময় নাট্যমঞ্চের পাশে গ্রিনবাংলা পরিবহনের একটি বাস তাদের রিকশাকে ধাক্কা দেয়। এতে তারা রাস্তায় ছিটকে পড়ে। পরে বাসটি মুক্তার ওপর দিয়ে উঠে যায়। এ সময় সাব্বির সামান্য আহত হয়।

গুলিস্তান আহাদ পুলিশ বক্সের ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) শহিদুল ইসলাম জানান, চালক ও সহকারীসহ গ্রিনবাংলা পরিবহনের বাসটিকে জব্দ করা হয়েছে। আর মৃতদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গে রয়েছে।

সারাবাংলা/এসএসআর/পিটিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন