বিজ্ঞাপন

করোনাভাইরাস: রাশিয়ায় অনির্দিষ্টকালের জন্য পেছালো গণভোট

মার্চ ২৬, ২০২০ | ২:৪৫ পূর্বাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

বিশ্বব্যাপী নভেল করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট কোভিড-১৯ বিশ্বমহামারির পরিস্থিতি ক্রমশঃ খারাপের দিকে মোড় নেওয়ায়, রাশিয়ার সংবিধান সংশোধনের জন্য এপ্রিলের ২২ তারিখ অনুষ্ঠেয় গণভোট অনির্দিষ্টকালের জন্য পিছিয়ে দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। বুধবার (২৫ মার্চ) এ খবর জানিয়েছে বিবিসি।

বিজ্ঞাপন

এর আগে, নভেল করোনাভাইরাসে রাশিয়ায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬৫৮ জন এবং মৃত্যু হয়েছে দুই জনের।

এ ব্যাপারে প্রসিডেন্ট পুতিন বলেছেন, তার কাছে জনগণের জীবন, স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তা সর্বাগ্রে। তাই এসবের ঝুঁকির কথা চিন্তা করে তিনি গণভোট পিছিয়ে দিয়েছেন। গণভোটের তারিখ পরে কোনো সরকারি ঘোষণার মাধ্যমে জানানো হবে।

বিজ্ঞাপন

তিনি আরও বলেন, রাশিয়ার ব্যাপক আয়তনের কারণে করোনাভাইরাস সংক্রমণ বন্ধ করা প্রায় অসম্ভব। কিন্তু, আরো সংক্রমণ ঠেকাতে রাশিয়ার নাগরিকদের এক সপ্তাহ বাইরে না বের হওয়ার নির্দেশনা দেন তিনি। এছাড়াও, করোনাভাইরাস সংক্রমণের মুখে রাশিয়ার অর্থনীতি ভেঙে পড়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন। তারপরও, চাকরিজিবীদের এক সপ্তাহ কাজে না গিয়েই বেতন নেওয়ার সুবিধা এবং এই সংকটের মধ্যে চাকরিচ্যুতদের অর্থনৈতিক প্রণোদনার ঘোষণা দেন তিনি।

এদিকে, রাশিয়ায় বাইরে থেকে কেউ প্রবেশ করলেই ১৪ দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেনটাইন ব্যবস্থাসহ জনসমাগম হয় এমন স্থান যেমনঃ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, নাইটক্লাব, সিনেমা হল, শিশুদের বিনোদন কেন্দ্র, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও ধর্মীয় অনুষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, প্রেসিডেন্ট পদে তৃতীয়বার লড়াই করার ব্যাপারে রাশিয়ার সংবিধানে যে নিষেধাজ্ঞা তা বাতিলের লক্ষে রাশিয়ার সংবিধানে সংশোধনী আনার প্রস্তাব দিয়েছেন পুতিন। তার ওই প্রস্তাব রাশিয়ার পার্লামেন্ট ও সাংবিধানিক আদালতে অনুমোদন পেয়েছে। এখন গণভোটে পাস করলেই পুতিন ২০৩৬ সাল পর্যন্ত এককভাবে রাশিয়া শাসন করবেন বলে জোর গুঞ্জন রয়েছে।

আরও পড়ুন -

‘রাশিয়ার প্রকৃত করোনাভাইরাস পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ’

গণভোট সামনে রেখে লকডাউন নিয়ে কৌশলী পুতিন

২০৩৬ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকছেন পুতিন?

সারাবাংলা/একেএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন