বিজ্ঞাপন

পাঞ্জাবে মৃত্যুর পর কোভিড-১৯ শনাক্ত, ২০ গ্রাম গণকোয়ারেনটাইনে

March 27, 2020 | 8:38 pm

ভারতের উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশ পাঞ্জাবে এক শিখ ধর্মগুরুর মৃত্যুর পর কোভিড-১৯ শনাক্ত করা হয়েছে। ওই 'সুপারস্প্রেডারের' মৃত্যুর জের ধরে ২০ গ্রামের ৪০ হাজার মানুষকে বাধ্যতামূলক গণকোয়ারেনটাইনে রেখেছে প্রাদেশিক প্রশাসন। শুক্রবার (২৭ মার্চ) এ খবর জানিয়েছে বিবিসি।

বিজ্ঞাপন

বিবিসি পাঞ্জাবি’র অরবিন্দ চাবড়া জানিয়েছেন, বলদেব সিং নামের মৃত ওই ৭০ বছর বয়সী ধর্মগুরু সম্প্রতি ইতালি ও জার্মানি সফর করে আসার পর তাকে সেলফ কোয়ারেনটাইনে থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়। কিন্তু, তা অমান্য করে তিনি শিখদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব ‘হলা মহল্লা’র বিশাল জনমসমাগমে যোগ দেন। ছয়দিনের ওই উৎসবে অন্ততঃ ৫০ হাজার মানুষের সমাগম হয়েছিল।

এদিকে, ওই ধর্মগুরুর মৃত্যুর সাত দিনের মাথায় তার ১৯ আত্মীয় নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হন। এ ব্যাপারে পাঞ্জাবের স্বাস্থ্য বিভাগের একজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা বিবিসিকে জানিয়েছেন, বলদেব সিংয়ের সঙ্গে সরাসরি সংস্পর্শে আসা ৫৫০ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা আশঙ্কাজনকভাবে বাড়তে থাকায়, ওই জেলার ১৫ গ্রাম এবং পাশের জেলার পাঁচ গ্রাম সিল করে দেওয়ার নির্দেশনা জারি করা হয়।

বিজ্ঞাপন

এর আগেও, রাজস্থানের একটি টেক্সটাইল মিলের আবাসিক এলাকায় সাত হাজার মানুষকে গণকোয়ারেনটাইনে রেখেছিল প্রাদেশিক কর্তৃপক্ষ।

যদিও, বিশ্বের সবচেয়ে কম করোনাভাইরাস টেস্টগুলোর তালিকায় প্রথম সারিতে রয়েছে ভারত। তারপরও, দেশটিতে ৬৪০ জন কোভিড-১৯ আক্রান্তকে শনাক্ত করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ৩০ জনই পাঞ্জাব প্রদেশের।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন