বিজ্ঞাপন

বাজার ও কলোনিতে টিসিবির ট্রাক, নেই ক্রেতাদের ভিড়

March 28, 2020 | 4:49 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট
ঢাকা: রাস্তায় মানুষজনের আনাগোনা কম থাকায় ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)-র ট্রাকগুলো এখন থাকছে কলোনি ও বাজারের দিকে। তবে কোনো ট্রাকেই খুব একটা ভিড় দেখা যায়নি ক্রেতাদের। সকালের দিকে কিছু ক্রেতা চোখে পড়লেও দুপরের দিকে অনেক স্থানেই কোনো ক্রেতা চোখে পড়েনি। আবার বেশ কয়েক জায়গায় ট্রাক থাকার কথা থাকলেও দেখা মেলেনি ট্রাকের।

বিজ্ঞাপন

শনিবার (২৮ মার্চ) রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে ও টিসিবির কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে এ চিত্র দেখা গেছে।

দুপুর ১টার দিকে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে টিসিবির গাড়ি থাকলেও সেখানে কোনো ক্রেতার দেখা পাওয়া যায়নি। আর সচিবালয়ের সামনে টিসিবি ট্রাক থাকার কথা থাকলেও ট্রাকের দেখা পাওয়া যায়নি।

বিজ্ঞাপন

এছাড়া দুপুরে ফার্মগেট ও খামারবাড়িতে টিসিবির ট্রাক দেখা যায়নি। সচিবালয়ের সামনের ট্রাক সেলটিতে সকালে কিছু ক্রেতা থাকলেও দুপুরে খুবএকটা ক্রেতা ছিল না। সেখানে আসা সেগুনবাগিচার বাসিন্দা শাহীন বলেন, ‘এইসময়েও ট্রাক সেল চালু রাখায় আমরা কিছুটা উপকৃত হয়েছি। আর এখন ভিড়ও নেই। অল্প সময়েই পণ্য কেনা যাচ্ছে।’

পুরান পল্টন এলাকার বাসিন্দা জাকারিয়া বলেন, ‘বাসা থেকে একটু বের হয়েছিলাম। তাই তেল, চিনি আর মসুর ডাল কিনে নিলাম। দোকানে তো এখন অনেক বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে।‘

টিসিবির মুখপাত্র হুমায়ুন কবির সারাবাংলাকে বলেন, ‘শনিবার টিসিবির ৬৪টি ট্রাক বের হয়েছে। যেহেতু রাস্তায় লোকজন নেই ট্রাকগুলোকে বাজারের কাছাকাছি থাকতে বলা হয়েছে। কোনো কোনো ক্ষেত্রে কলোনিতে যেতে বলা হয়েছে। এ কারণেই তেমনভাবে টিসিবির ট্রাক দেখা নাও যেতে পারে।’ এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘ছুটি থাকায় রাস্তায় মানুষজন নেই। ট্রাকগুলোতেও ভিড় নেই। চার-পাঁচজন করে এসে নিয়ে যাচ্ছে। এছাড়া বিক্রিতেও ধীরগতি রয়েছে।’

এদিকে, সাধারণ ছুটিতে ৬০টি ট্রাকে টিসিবির পণ্য বিক্রি চলবে বলে জানানো হয়েছিল। অব্যাহত থাকার কথা রয়েছে সারাদেশের ৩৫০টি ট্রাক সেলের কার্যক্রমও।

শুক্রবার (২৭ মার্চ) দুপুরে টিসিবির মুখপাত্র হুমায়ুর কবির সারাবাংলাকে বলেন, ‘বর্তমানে সারাদেশে ৩৫০টি ট্রাক সেলের কার্যক্রম চলমান রয়েছে। এরমধ্যে ঢাকায় ৬০টি ট্রাকে পণ্য বিক্রি হচ্ছে। স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে বৃহস্পতিবার ও সাপ্তাহিক ছুটির কারণে শুক্রবার এই কার্যক্রম বন্ধ ছিল। আগামীকাল থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত পণ্য বিক্রির কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। মূলত রমজান পর্যন্তই এ কার্যক্রম চলবে।’

এদিকে, তেল, চিনি ও ডালসহ পাঁচটি নিত্য পণ্যের পর্যাপ্ত মজুদ রয়েছে ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি) এ। ভোক্তাদের এসব পণ্য নিয়ে চিন্তিত হওয়ার কিছু নেই বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

টিসিবির মুখপাত্র হুমায়ুন কবির সারাবাংলাকে জানান, আমাদের হাতে তেল-চিনি-মসুর ডালের পর্যাপ্ত মজুদ রয়েছে। এ বিষয়ে ভোক্তার চিন্তিত হওয়ার প্রয়োজন নেই। ক্রেতারা টিসিবির ট্রাক থেকে থেকে তা কিনতে পারবেন।

তিনি আরও জানান, যে পাঁচটি পণ্য ন্যায্যমূল্যে বিক্রি হয়; সবগুলোরই পর্যাপ্ত মজুদ রয়েছে। এখন পর্যন্ত যে পণ্য আছে তা দিয়ে রজমান পর্যন্ত তো স্বাভাবিক কার্যক্রম চলবেই, বরং আরও বেশি সময় চলার মতো মজুদ রয়েছে আমাদের।

টিসিবিতে এখন চিনি, মশুর ডাল, সয়াবিল তেল ও পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে। চিনি ৫০ টাকা কেজি (সর্বোচ্চ ৪ কেজি), মশুর ডাল ৫০ টাকা কেজি (সর্বোচ্চ ২ কেজি), সয়াবিন তেল ৮০ টাকা লিটার (সর্বোচ্চ ৫ লিটার) ও পেঁয়াজ ৩৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

নগরীর যেসব স্থানে টিসিবির পণ্য বিক্রির কথা রয়েছে- সচিবালয় গেট, যাত্রাবাড়ী, ইত্তেফাক মোড়, শান্তিনগর বাজার, শাহজাহানপুর বাজার, খামারবাড়ী ফার্মগেট, মিরপুর ১৪ কচুক্ষেত, মিরপুর-১ মাজার রোড, শ্যামলী মোড়/ন্যাম গার্ডেন, উত্তরা আব্দুল্লাপুর, ভিকারুনেচ্ছা ১০ নং গেইট/ইস্টার্ন গাউজিং গেইট, বেগুনবাড়ী, মতিঝিল সরকারী কলোনী, ভাষানটেক বাজার, মধ্য বাড্ডা, পলাশী/ছাপড়া মসজিদ, জিগাতলা/ধানমন্ডি সরকারি কলোনী, রামপুরা বাজার, মাদারটেক/নন্দীপাড়া/কৃষি ব্যাংকের সামনে, আদাবর/মনসুরাবাদ, বাংলা কলেজ, শাহ সাহেব মাঠ আজিমপুর বটতলা, আশকোনা হাজী ক্যাম্প, বাসাবো বাজার, আজমপুর, ডিসি অফিস, সাতারকুল, বাংলাদেশ ব্যাংক, মিরপুর-২/১২, মাতুয়াল/সিদ্ধিরগঞ্জ, ইসিবি/কালসি, গাবতলী/টেকনিক্যাল, কাপ্তান বাজার, সোয়ারীঘাট/নবাবগঞ্জ সেকশন, বনশ্রী বাজার, কলমিলতা বাজার, কারওয়ানবাজার, দিলকুশা, মেরাদিয়া বাজার, নিপ্পন বটতলা, খিলগাঁও তালতলা, মুগদা, নিউমার্কেট, টঙ্গীবাজার, শণির আখড়া, বছিলা, কামরাঙ্গীর চর লোহার পুল, সারুলিয়া বাজার, গঙ্গী বাজার, ৬০ ফিট ভাঙ্গা মসজিদ, গুলিবাগ খোকন কমিউনিটি সেন্টার, গুলশান ভাটারা বাজার, সাভার বাজার, আনন্দ সিনেমা হল, মগবাজার ফরচুন মার্কেট, হাতিরপুল বাজার, মালিবাগ বাজার, উত্তর বাড্ডা বাজার ও খিলক্ষেত বাজার।

সারাবাংলা/ইএইচটি/এমআই

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন