বিজ্ঞাপন

করোনা মোকাবিলায় অধিনায়ক থেকে স্বেচ্ছাসেবী

March 29, 2020 | 9:08 pm

স্পোর্টস ডেস্ক

গত নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ইংল্যান্ড নারী দলের অধিনায়ক হিদার নাইটের সেই কান্নাভেজা মুখটা মনে আছে? না খেলেই সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিতে হয়েছিল ইংলিশদের। বৃষ্টির কারণে ইংল্যান্ড-ভারতের মধ্যকার সেমিফাইনাল বাতিল হয়। পরে গ্রুপ পর্বে এগিয়ে থাকার কারণে জয়ী ঘোষণা করা হয় ভারতকে। অমন বিদায় মানতে পারেননি, ফল ঘোষণার পর অশ্রু ঝরিয়ে বলছিলেন নাইট।

বিজ্ঞাপন

বিশ্বকাপে দুই সেঞ্চুরির একটি তার। চার ম্যাচে ১৯৩ রান করে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাকদের তালিকায় ছিলেন চার নম্বরে। বিশ্বকাপের পর থেকে ঘরেই ছিলেন। এর মধ্যেই পৃথিবীকে ভড়কে দিয়ে হাজির করোনাভাইরাস। ইংল্যান্ডেও আতঙ্ক ছড়াচ্ছে ভাইরাসটি। এই কঠিন সময়ে ঘরে বসে না থেকে জনসেবায় নিজেকে নিয়োজিত করলেন নাইট।

চিকিৎসাসেবা দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে বলে ইংল্যান্ডের জাতীয় স্বাস্থ্য সেবা (এনএইচএস) বিভাগ আড়াই লাখ স্বেচ্ছাসেবী চেয়ে আকুতি জানিয়েছে। ইতোমধ্যেই এই অহ্বানে সাড়া দিয়েছেন পাঁচ লক্ষ মানুষ। তাদের মধ্যে অধিনায়ক নাইটও একজন!

বিজ্ঞাপন

এ বিষয়ে ইংলিশ অধিনায়ক বলেন, ‘এখন খেলা নেই অনুশীলন নেই। অবসর সময় কাটছিল। তাই আমি সময়টাকে কাজে লাগাতে চাইছি। আমার ভাই ও তার বান্ধবী ডাক্তার। আমার কিছু বন্ধুও এনএইচএসে কাজ করছেন। আমি জানি তাদের ওপর দিয়ে কতটা ধকল যাচ্ছে।’

এনএইচএসের স্বেচ্ছাসেবীরা মূলত ফার্মেসী থেকে ঔষুধ রোগীদের বাড়িতে পৌঁছে দেওয়া, আক্রান্তদের বাড়ি থেকে হাসাপাতাল পর্যন্ত নিয়ে যাওয়া, আইসোলেশনে থাকা ব্যক্তিদের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করছেন।

উল্লেখ্য, যুক্তরাজ্যে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১৭ হাজারেরও বেশি মানুষ। মৃতের সংখ্যা এক হাজারেরও বেশি।

সারাবাংলা/এসএইচএস/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন