বিজ্ঞাপন

নিউজিল্যান্ডে আটকে পড়া ১ লাখ পর্যটক ফিরতে শুরু করেছেন

April 3, 2020 | 2:57 pm

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

নভেল করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট বিশ্বমহামারি কোভিড-১৯ এর গণসংক্রমণ ঠেকাতে গত সপ্তাহ থেকে নিউজিল্যান্ডে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। এর মধ্যেই দেশটিতে বিভিন্ন অঞ্চল থেকে ভ্রমণে যাওয়া এক লাখ পর্যটক আটকা পড়েছিলেন। নানামুখী চাপের মুখে শুক্রবার (৩ এপ্রিল) থেকে তারা নিজনিজ দেশে ফেরা শুরু করেছেন। খবর অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস।

বিজ্ঞাপন

এর আগে, একমাসের কঠোর লকডাউন শুরুর সময়ই অভ্যন্তরীণ ফ্লাইটগুলোও বন্ধ করে দেয় নিউজিল্যান্ড। এ কারণে নিউজিল্যান্ডের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে পর্যটকরা অকল্যান্ডে এসে পৌঁছাতে পারেননি। আর অকল্যান্ড বিমানবন্দর থেকেই সব আন্তর্জাতিক ফ্লাইটগুলো ছেড়ে যায়।

এদিকে নিউজিল্যান্ডের পররাষ্ট্রমন্ত্রী উইনস্টোন পিটারস বৃহস্পতিবার (২ এপ্রিল) ঘোষণা দিয়েছেন, বিদেশি পর্যটকরা এখন বিভিন্ন ফ্লাইট ধরে নিজনিজ দেশে চলে যেতে পারবেন। এমনকি, কোনো দেশ যদি ভাড়া করা বিমানে করে তার নাগরিকদের নিজদেশে ফিরিয়ে নিতে চায় তাতেও কোনো সমস্যা থাকবে না।

বিজ্ঞাপন

যদিও সরকারিসূত্রে জানানো হয়েছে বিভিন্ন দেশের ৩৭ হাজার পর্যটক আটকে পড়েছেন বলে সংশ্লিষ্ট দূতাবাসগুলো তথ্য দিয়েছে। কিন্তু এর প্রকৃত সংখ্যা এক লাখ। তার মধ্যে ২৭শ পর্যটক এশিয়ার, উত্তর ও দক্ষিণ আমেরিকার ৩৮শ পর্যটক নিজের দেশে ফিরে যাওয়ার জন্য নিবন্ধন করেছেন।

অন্যদিকে, বিশেষ ব্যবস্থায় কাতার এয়ারোয়েজের একটি বা দুইটি করে ফ্লাইট প্রতিদিন ইউরোপের উদ্দেশে ছেড়ে যাবে।

বিজ্ঞাপন

প্রসঙ্গত, নিউজিল্যান্ডে নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৮৬৮ জন। মৃত্যু হয়েছে একজনের।

সারাবাংলা/একেএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন