বিজ্ঞাপন

মার্সেলোর কাছে পাওনা বার্গার চাইলেন ভিনিসিয়াস

April 18, 2020 | 2:45 pm

স্পোর্টস ডেস্ক

মহামারি করোনা শুরুর আগেই সুখস্মৃতি ছিল স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদ শিবিরে। বার্সেলোনাকে হারিয়ে বেশ ফুরফুরে মেজাজে গ্যালাক্টিকোরা। আর কাতালানদের হারাতে সব থেকে বড় ভূমিকা রেখেছিলেন ১৯ বছর বয়সী তরুণ ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড ভিনিসিয়াস জুনিয়র। আর গোল করার সুবাদে আরেক ব্রাজিলিয়ান মার্সেলো তাকে এল ক্লাসিকোতে গোল করার সুবাদে বার্গার খাওয়াতে চেয়েছিল।

বিজ্ঞাপন

করোনাভাইরাস মহামারি আকার ধারন করার পর মাঠের ফুটবল স্থগিত। ফুটবলাররা ঘরে বসেই সময় কাটাচ্ছেন, ধরে রাখছেন নিজেদের ফিটনেস আর ইচ্ছামতো অনুশীলন করছেন। এর মধ্যেই ইনস্টাগ্রাম লাইভে এসে ভক্ত সমর্থকদের সঙ্গে কিছু মুহুর্তও ভাগাভাগি করছেন। আর এমন এক মুহুর্তেই এক সঙ্গে লাইভে এসেছিলেন দুই ব্রাজিলিয়ান তারকা ফুটবলার মার্সেলো এবং ভিনিসিয়াস জুনিয়র।

লাইভের এক পর্যায়ে রিয়ালের দ্বিতিয় অধিনায়ক মার্সেলো তার সতীর্থ ভিনিসিয়াসকে প্রশ্ন করেন রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে তার সেরা গোল কোনটি। এর জবাবে ভিনিসিয়াস বলেন, 'অবশ্যই সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে বার্সেলোনার বিরুদ্ধে করা গোলটি। ও হ্যা! তোমার কাছে আমার একটি বার্গার পাওয়ানা রয়েছে। তুমি আমাকে কথা দিয়েছিলে এল ক্লাসিকোতে গোল করলে আমাকে বার্গার খাওয়াবে।'

বিজ্ঞাপন

২০১৮ সালে ফ্লামেঙ্গো ছেড়ে লস ব্ল্যাঙ্কোসদের দলে যোগ দেন ভিনিসিয়াস। আর তখন থেকেই দুই সিনিয়র ব্রাজিলিয়ান মার্সেলো এবং কার্লোস হেনরিখ ক্যাসেমিরোর ছত্রছায়াতেই নিজেকে গড়ে তুলছেন তরুণ এই ফুটবলার। মার্সেলোর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে ভিনিসিয়াস বলেন, 'আমি তোমার প্রতি কৃতজ্ঞ। তুমি আমাকে সাহায্য করেছো কীভাবে খেলতে হবে, কীভাবে চলতে হবে। সব কিছু নিয়ে আমি তোমার প্রতি কৃতজ্ঞ।'

ভিনিয়াস আরো বলেন, 'মাঠের মধ্যে তুমিই আমাকে বলে দাও কখন আক্রমণ করতে হবে। কখন কোথায় থাকতে হবে। আমি চেষ্টা করছি নিজেকে সর্বোচ্চ প্রস্তুত রাখার।' এছাড়াও ভিনিসিয়াস জানান এখন আর তিনি পত্রিকা পড়েন না। কারণ পত্রিকা এক দিন লেখে তুমি পৃথিবীর সব থেকে খারাপ খেলোয়াড় আবার একদিন ভালো খেললে সেরা ফুটবলার বানিয়ে দেয়।

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন