বিজ্ঞাপন

পঞ্চগড়ে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর উদ্যোগে ত্রাণ বিতরণ

May 10, 2020 | 4:59 pm

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট

পঞ্চগড়: পঞ্চগড় জেলায় গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর (ভিডিপি) দেড় হাজার দুস্থ স্বেচ্ছাসেবীর মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ কাজের উদ্বোধন করা হয়েছে। রোববার (১০ মে) সকালে পঞ্চগড় জেলা আনসার-ভিডিপি কার্যালয় মাঠ থেকে এই ত্রাণ বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর পঞ্চগড় জেলা কামান্ড্যান্ট মো. আশরাফুল ইসলাম।

বিজ্ঞাপন

কর্মসূচির প্রথম দিনে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর মহাপরিচালকের উপহার হিসেবে ৩ শ দুস্থ স্বেচ্ছাসেবীর মাঝে চাল, ডাল, তেল, আলু, পেঁয়াজ, সাবান ও মাস্ক বিতরণ করা হয়।

এ বিষয়ে জেলা কামান্ড্যান্ট মো. আশরাফুল ইসলাম বলেন, ‘প্রথম দিন ৩ শ পরিবারকে ত্রাণ সহায়তা দিয়ে কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়েছে। এরপর পর্যায়ক্রমে জেলার আরও পাঁচটি উপজেলায় ১ হাজার ৫০০ স্বেচ্চাসেবী ভিডিপি পরিবারের মধ্যে খাদ্য ও স্বাস্থ্য নিরাপত্তা সামগ্রী বিতরণ করা হবে।’

বিজ্ঞাপন

পাশাপাশি সদর ও তেঁতুলিয়া উপজেলায় ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে উপজেলা আভি কমকর্তা, প্রশিক্ষক, প্রশিক্ষিকা উপস্থিত থেকে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন। এছাড়া বাহিনীর অন্যান্য কর্মকর্তা ও কর্মচারীরাও উপস্থিত ছিলেন।

পঞ্চগড়ে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর উদ্যোগে ত্রাণ বিতরণ

বিজ্ঞাপন

উল্লেখ্য, সারাদেশে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে অঘোষিত লকডাউন পরিস্থিতিতে খাদ্য ও অর্থাভাবে থাকা ১ লাখ ৪৬ হাজার ৬০০ পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেওয়ার উদ্যোগ নেন বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর মহাপরিচালক মেজর জেনারেল কাজী শরীফ কায়কোবাদ।

রংপুর বিভাগের স্বেচ্চাসেবী ভিডিপি পরিবারদের মধ্যে সুশৃঙ্খলভাবে খাদ্য সহায়তার প্রদান কার্যক্রমের সার্বিক তত্ত্বাবধান করেন বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর রংপুর রেঞ্জের রেঞ্জ পরিচালক এ কে এম জিয়াউল আলম।

বিজ্ঞাপন

এছাড়া জিয়াউল আলমের উদ্যোগে রংপুর বিভাগে করোনায় আক্রান্ত মৃত সদস্যদের দাফনের জন্য ‘চিরবিদায় সেবা কার্যক্রম‘ নামে একটি টিম গঠন করেছেন। বিভাগের যেকোনো জেলায় আনসার সদস্যরা করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেলে তাদের দাফন-কাফনের সব দায়িত্ব পালন করে থাকে দলটি।

সারাবাংলা/এমআই

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন