বিজ্ঞাপন

সংকট উত্তরণের পথ খুঁজছেন পর্যটন শিল্প ব্যবসায়ীরা

May 18, 2020 | 8:07 pm

লাইফস্টাইল ডেস্ক

ঢাকা: করোনাভাইরাসের কারণে সব ধরনের ভ্রমণ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ক্ষতির মুখে পড়েছে ট্রাভেল এজেন্সিগুলো। মানুষের গৃহবন্দি অবস্থা কতদিন চলবে, তাতে এ শিল্প আরও কী ধরনের ক্ষতির সম্ভাবনা আছে এবং এই ক্ষতির ধকল সামলিয়ে আবারও কিভাবে ব্যবসায় নামবেন তার পথ খুঁজছেন পর্যটন শিল্পের সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা।

বিজ্ঞাপন

আর এসব বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনার উদ্দেশে ‘পর্যটন শিল্পে কাজের প্রস্তুতি ও পরামর্শ’ বিষয়ক অনলাইন টক-শো’র আয়োজন করেছে ট্রাভেল এজেন্সি ‘ট্রাভেলার কী’।

অনুষ্ঠানটি ১৮ মে, সোমবার রাত ৮টায় অনলাইনে সম্প্রচার করা হবে। সেখানে অংশ নেবেন দেশ-বিদেশে পর্যটন ব্যবসার সঙ্গে জড়িত কয়েকজন নারী কর্মকর্তা।

বিজ্ঞাপন

ট্রাভেলার কী এর চেয়ারম্যান ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ডালটন জহির বলেন, ‘কোভিড-১৯ এর কারণে ট্রাভেল ইন্ডাস্ট্রি ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। ক্ষতি পুষিয়ে এই ইন্ডাস্ট্রি চালু হতেও সময় লাগবে। কারণ এই পরিস্থিতিতে মানুষ দেশে বা দেশের বাইরে ঘুরতে যাবে না। তবে যেহেতু গার্মেন্টস বা অন্যান্য প্রতিষ্ঠান স্বল্প পরিসরে চালু রাখার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে, ফলে ট্রাভেল এজেন্সিও কী করতে পারে তা নিয়ে আলোচনা হওয়া দরকার। শুধু আমাদের দেশেই নয়, বিশ্বের আরও কয়েকটি দেশে লকডাউন তুলে দেওয়া হচ্ছে। ফলে বিষয়টি এখন আলোচনার দাবি রাখে।’

তিনি জানান, দেশে দেশে ট্রাভেল এজেন্সিগুলোতে বড় অংশ জুড়ে রয়েছেন নারীরা। ফলে নারীদের মতামত জানা জরুরি। নিজের দেশের ট্রাভেল ইন্ডাস্ট্রির বর্তমান অবস্থা ও প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ সংক্রান্ত আলোচনা তুলে ধরতেই টক শো’র আয়োজন করা হয়েছে। পর্যাপ্ত সুরক্ষা মেনে ট্রাভেল ইন্ডাস্ট্রিকে চালু করা যায় কি না তাও উঠে আসবে আলোচনায়।

ডালটন জহিরের পরিচালনায় টক শো অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন রিজেন্ট এয়ারওয়েজের সিসিও হানিফ জাকারিয়া, অতিরিক্ত সহকারী পুলিশ কমিশনার শাহীন শাহ্ মাহমুদ ও বাংলাদেশসহ বিশ্বের কয়েকটি দেশের ট্রাভেল ইন্ডাস্ট্রিতে কর্মরত নারীরা।

সারাবাংলা/টিসি/এমআই

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন